Sunday, November 27, 2022
spot_img
Homeঅটোমোবাইলসস্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে অটোমোবাইল শিল্প একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত

স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে অটোমোবাইল শিল্প একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন ফ্ল্যাগশীপ ভেঞ্চার ক্যাপিটাল প্রতিষ্ঠান ‘স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড’ অনলাইন অটোমোটিভ সলিউশন প্রোভাইডার ‘ভ্রুম সার্ভিসেস লিমিটেড’ (ভ্রুম)- এ বিনিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ভ্রুম ২০১৭ সালের শেষের দিকে যাত্রা শুরু করে এবং স্টার্টআপটি ওয়েবসাইট ও অটোমোবাইল সম্পর্কিত মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে গাড়ীর ৩৬০ ডিগ্রী সেবা প্রদান করে আসছে।

২৬ অক্টোবর ২০২২ বুধবার বিকালে ঢাকার গুলশানে স্টার্টআপ বাংলাদেশ কার্যালয়ে প্রতিষ্ঠান দু’টির মধ্যে একটি বিনিয়োগ সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব ও স্টার্টআপ বাংলাদেশের বোর্ড অব ডিরেক্টরস এর চেয়ারম্যান এন এম জিয়াউল আলম পিএএ এর উপস্থিতিতে স্টার্টআপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ এবং ভ্রুম সার্ভিসেস লিমিটেডের চেয়ারম্যান জিয়া চৌধুরী উক্ত চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন

এসময় স্টার্টআপ বাংলাদেশের হেড অব পোর্টফোলিও ইনভেস্টমেন্ট হাসান এ. আরিফ এবং ভ্রুম সার্ভিসেস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ আহসান হাবীব, নির্বাহী পরিচালক মাসুম মহিউদ্দিন মুরাদ -সহ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য কর্মকর্তাগণ এ আয়োজনে উপস্থিত ছিলেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম পিএএ বলেন, “ভ্রুম অটোমোবাইল শিল্পে যে কাজ করছে তা অত্যন্ত প্রশংসনীয় এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশের বিনিয়োগ ভ্রুম -কে এ শিল্পের ইতিবাচক পরিবর্তনকারী হতে সাহায্য করবে। তিনি বলেন যে স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নে অটোমোবাইল শিল্প একটি গুরুত্বপূর্ণ খাত। আমি আশা করি তারা স্মার্ট বাংলাদেশ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে অটোমোবাইল শিল্পে গভীর প্রভাব ফেলতে সক্ষম হবে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ উদীয়মান স্টার্টআপদেরকে সহায়তা প্রদানের জন্য বিবিধ নীতি প্রণয়নের লক্ষ্যে নিষ্ঠার সাথে কাজ করছে। সঠিক কৌশল প্রয়োগ এবং ফোকাস ঠিক রেখে কাজ করতে পারলে আমাদের স্টার্টআপ ইকোসিস্টেমে ভ্রুম একটি সফল স্টার্টআপ হিসাবে উল্লেখযোগ্য উদাহরণ তৈরি করতে সক্ষম হবে”।

স্টার্টআপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ বলেন, “স্টার্টআপ বাংলাদেশের লক্ষ্য হল দেশীয় স্টার্টআপদের টেকসই উন্নয়ন এবং তাদেরকে এমন উচ্চতায় পৌঁছাতে সহায়তা করা যা আরও বেশি বিদেশী বিনিয়োগকে আকৃষ্ট করবে এবং দেশীয় কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে সহায়তা করবে। স্থানীয় স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম ভ্রুম -এর মতো সম্ভাব্য উদ্যোগগুলোর দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হয় যেখানে প্রত্যয়, নিষ্ঠা এবং পেশাদারিত্ব একত্রিত হয়ে এমন একটি দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করে যা পুরো শিল্পকে একটি উল্লেখযোগ্য অগ্রগতির জন্য শক্তি প্রদান করতে পারে”।

ভ্রুম সার্ভিসেস লিমিটেডের চেয়ারম্যান জিয়া চৌধুরী বলেন যে, “ভ্রুম এর লক্ষ্য হল অটোমোবাইল সম্পর্কিত পণ্য এবং পরিষেবাগুলোর জন্য একটি ওয়ানস্টপ প্ল্যাটফর্ম তৈরি করা। স্টার্টআপ বাংলাদেশের এই বিনিয়োগ ভ্রুমকে অটোমোবাইল সেক্টরে তার ডিজিটাল পরিষেবার পোর্টফোলিওকে শক্তিশালী করতে সাহায্য করবে পাশাপাশি উন্নত ডিজিটাল বাংলাদেশ তৈরির লক্ষ্যে উল্লেখযোগ্যভাবে অবদান রাখবে।”

উল্লেখ্য, অটোমোবাইল সেক্টরে ডিজিটালাইজেশন এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে, যার কারনে গ্রাহকরা অনেক পরিষেবা এবং সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং স্টার্টআপ বাংলাদেশ ভ্রুম -এর মতো স্টেকহোল্ডারদের ও ট্রেড পার্টনারদের সাথে হাত মিলিয়ে অটোমোবাইল সেক্টরকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে চায়। স্টার্টআপ বাংলাদেশ কর্তৃক প্রদত্ত ফান্ড দিয়ে, ভ্রুম হাইব্রিড এবং ইভি টার্গেটেড ওয়ার্কশপ প্রকল্প শুরু করবে এবং মেকানিক্স, ড্রাইভার এবং গাড়ী মালিকদের জন্য দক্ষতা উন্নয়ন কর্মসূচির উদ্যোগও গ্রহন করবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক এর দিক-নির্দেশনায় ও পরামর্শে বাংলাদেশে একটি টেকসই স্টার্টআপ ইকোসিস্টেম তৈরিতে নিরলসভাবে কাজ করছে স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড। স্টার্টআপদের উদ্ভাবনী ধারণাকে ব্যবসায় রূপান্তরিত করে দেশে সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ উৎসাহিত করতে কার্যক্রম চলমান রাখছে স্টার্টআপ বাংলাদেশ লিমিটেড।

spot_img
আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

সর্বাাধিক পঠিত

spot_img