Monday, June 17, 2024
spot_img
Homeইভেন্টএনভোফ্রেম খুলনা আইডিয়া প্রতিযোগিতার সফল সমাপ্তি

এনভোফ্রেম খুলনা আইডিয়া প্রতিযোগিতার সফল সমাপ্তি

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলগুলো বেশ কিছু গুরুতর প্রতিকূল পরিস্থিতির মুখোমুখি হচ্ছে যা মোকাবেলায় প্রয়োজন আশু সমাধান এবং একই সাথে প্রয়োজন জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণ।”- শনিবার, ১২ আগস্ট, ২০২৩ খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত “খুলনা এনভোফ্রেম: ক্লাইমেট সল্যুশন ফর সাসটেইনাবল ফিউচার” শীর্ষক একটি আইডিয়া প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন যে, পরিবেশ দূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তন আমাদের জীবনকে ভিন্নভাবে প্রভাবিত করে। আমরা প্রায়শই এটি বুঝতে পারি না কিন্তু এর প্রভাব এড়ানোর কোন উপায় নেই। সেজন্য আমাদের আচরণ ও মানসিকতা হতে হবে পরিবেশবান্ধব সমাধানের ওপর ভিত্তি করে। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের কথা মাথায় রাখতে হবে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ এবং এ বিষয়ে তরুণ নেতৃত্বের একান্ত প্রয়োজন। সবশেষে প্রত্যেকের নিজ নিজ জায়গা থেকে অবদান রাখার দায়িত্ব রয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংসদ সদস্য ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি এবং আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ এমপি  এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি ও  পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এমপি।

অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্বকারী খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেনও পরিবেশ রক্ষায় সম্মিলিত প্রচেষ্টার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, এই প্রচেষ্টাগুলো এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এ আয়োজনে আরো উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর মোঃ সানাউল ইসলাম, হেড অফ সয়েল, ওয়াটার অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডিসিপ্লিন; সহযোগী অধ্যাপক আসমা উল হুসনা, ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ ডিসিপ্লিনের প্রধান; প্রফেসর মোঃ শরীফ হাসান লিমন, ছাত্র বিষয়ক পরিচালক; একই বিষয়ে বক্তব্য রাখেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক খান গোলাম কুদ্দুস। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন এনভোলিডের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও মোরশেদুল বারী এবং আর্থ সোসাইটি এর নির্বাহী পরিচালক মামুন মিয়া।

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিক লিয়াকত আলী মিলনায়তনে ক্লাইমেট পার্লামেন্ট-বাংলাদেশ, আর্থ সোসাইটি এবং টুওয়ার্ডস সাসটেইনেবিলিটির সহযোগিতায় এনভোলিড উক্ত আইডিয়া প্রতিযোগিতাটির আয়োজন করে। প্রতিযোগিতাটিতে খুলনা বিভাগের প্রায় ২২ টি বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজের  অংশগ্রহণকারী দলগুলো এসডিজি’র জন্য সমর্থন জোরদার করার লক্ষ্যে নিজ নিজ এলাকার সমস্যাগুলো চিহ্নিত করে তার অভিনব সমাধান এবং ইতিবাচক প্রভাব ভিত্তিক ভিডিও প্রেজেন্টেশন জমা দেয়।

একটি অসাধারণ সমাধান আইডিয়া এর মাধ্যমে “ইকো টাইড ভিশনারি” উক্ত প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার জিতে নেয়। এছাড়াও, “ইকো ওয়ারিয়র” এবং “কোস্টাল জিও গার্ডিয়ান” যথাক্রমে ১ম রানার আপ এবং ২য় রানার-আপ স্থান লাভ করে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৩৬ টি দল প্রতিযোগিতায় আইডিয়া জমা দেয় এবং চূড়ান্ত পর্বে নির্বাচিত পাঁচটি দল তাদের সমাধানের আইডিয়া পেশ করে। ১ম স্থান অধিকারী ৫০ হাজার টাকা, ১ম রানার আপ ৩০ হাজার টাকা এবং ২য় রানার আপ ২০ হাজার টাকা পুরস্কার হিসাবে গ্রহণ করে।

“খুলনা এনভোফ্রেম: ক্লাইমেট সল্যুশন ফর সাসটেইনাবল ফিউচার” হল একটি আইডিয়া প্রতিযোগিতা যার মাধ্যমে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকার সাতক্ষীরা-খুলনা অঞ্চলের মানুষের জীবনে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব বিষয়ক সমস্যাগুলোকে তুলে ধরার পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট সমস্যার উদ্ভাবনী সমাধান খুঁজে পাওয়ার লক্ষ্যে আয়োজন করার একটি প্রয়াস। বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলগুলো একটি সংকটময় এবং জরুরি পরিস্থিতির মুখোমুখি হচ্ছে যা আমাদের আশু দৃষ্টি আকর্ষণ করার দাবি রাখে। সমগ্র উপকূলীয় অঞ্চল বিভিন্ন পরিবেশগত ও সামাজিক চ্যালেঞ্জের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ যা দিন দিন আরো আগ্রাসী হয়ে উঠেছে। এছাড়া, উপকূলীয় জনগোষ্ঠীর ক্ষমতায়ন, নতুন অভিযোজন কৌশলকে উৎসাহিত করা এবং উদ্ভাবনী সমাধান খুঁজে বের করা একেবারেই অপরিহার্য। এ অঞ্চলের জীবন জীবিকা ঝুঁকিতে রয়েছে এবং এই সম্প্রদায়গুলোর অস্তিত্ব হুমকির মধ্যে রয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তনের এ ধরণের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সমস্যার মাঝেই রয়েছে সম্ভাব্য সমাধান।  এমন চিন্তা থেকেই এনভোলিড খুলনা এনভোফ্রেমে এ অঞ্চলের মানুষের সমস্যাগুলো প্রামাণ্য চিত্রে তুলে ধরতে চেয়েছে সেই সাথে তরুণ পরিবেশ উদ্ভাবকদের কাছেই খুঁজেছে সমাধান সূত্র। তরুণ পরিবেশ যোদ্ধাদের নিজ এলাকার জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় একযোগে কাজ করতে উৎসাহিত করতে চেয়েছে।

আয়োজনটির চূড়ান্ত পর্বে বিচারকদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, প্রখ্যাত সাংবাদিক, যমুনা টেলিভিশনের বিশেষ প্রতিবেদক মহসিন উল হাকিম; অশোক অধিকারী, আঞ্চলিক প্রকল্প ব্যবস্থাপক-খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয়, জেন্ডার-রেস্পন্সিভ কোস্টাল অ্যাডাপ্টেশন প্রজেক্ট, ইউএনডিপি বাংলাদেশ এবং এনভোলিড লিমিটেডের ইনোভেশন এন্ড সাস্টেইনেবিলিটি এডভাইজার তানিয়া নূর।

spot_img
আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

সর্বাাধিক পঠিত

spot_img