Friday, May 24, 2024
spot_img
Homeইভেন্টকাল থেকে উই সামিট

কাল থেকে উই সামিট

৬ ও ৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ই-কমার্স নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার সর্ববৃহৎ সামিট ‘উইমেন ই-কমার্স এন্ট্রাপ্রেনিউরশিপ সামিট (উই সামিট) ২০২৩’। নারী উদ্যোক্তাদের নিয়ে কাজ করা দেশের শীর্ষস্থানীয় সংগঠন উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স ট্রাস্ট (উই) এর উদ্যোগে সারা দেশ থেকে আসা নারী উদ্যোক্তা ও খাত সংশ্লিষ্ঠদের অংশগ্রহণে এই সামিট অনুষ্ঠিত হবে। সামিটের সহযোগিতায় রয়েছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, কন্ট্রোলার অব সার্টিফাইং অথরিটিজ এবং উইমেন এন্ট্রাপ্রেনিউরস ফিন্যান্স ইনিশিয়েটিভ (উই-ফাই)।

শুক্রবার সকাল ১০টায় রাজধানীর কুড়িলে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় ‘উইমেন ই-কমার্স এন্ট্রাপ্রেনিউরশিপ সামিট ২০২৩’ উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, এমপি। সভাপতিত্ব করবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আয়োজনের আহ্বায়ক হিসেবে থাকবেন উই প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি নাসিমা আক্তার নিশা। স্বাগত বক্তব্য রাখবেন উই-এর পরিচালক ইমানা হক জ্যোতি। এছাড়া সামিটের দ্বিতীয় দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বিশাল পরিসরে দুই দিনের ওই সামিটে থাকছে সারা দেশ থেকে অংশ নেওয়া নারী উদ্যোক্তাদের জন্য বিভিন্ন সেশন, অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্য, সেমিনার, কর্মশালাসহ বিশেষ সব আয়োজন।

উই সামিটের প্রথম দিনে একটি কি-নোট প্রেজেন্টেশনসহ থাকছে ছয়টি সেশন। এসব সেশনে বিশেষ স্পিকার হিসেবে দেশ-বিদেশের অসংখ্য বক্তা ও বিভিন্ন খাতের স্বনামধন্য ব্যক্তিরা অংশ নেবেন। পাশাপাশি থাকছে ই-কমার্স খাতের এবং খাত সংশ্লিষ্ট অভিজ্ঞদের সঙ্গে নতুনদের নেটওয়ার্কিং সেশনও। থাকবে র‍্যাফেল ড্র।

দ্বিতীয় দিনে থাকছে দুটি কর্মশালা, একটি সেমিনার। এছাড়া অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে এবারও স্থানীয় পণ্য নিয়ে কাজ করা নারীদের মধ্য থেকে ১০ জনকে দেওয়া হবে ‘জয়ী অ্যাওয়ার্ড’। সারা দেশ থেকে যেসব নারীরা ই-কমার্সের মাধ্যমে তাদের পণ্য দেশ ও বিশ্ববাজারে তুলে ধরতে অসামান্য অবদান রাখছেন তাদের এই বিশেষ সম্মাননা পুরস্কার দেওয়া হবে।

উইমেন ই-কমার্স এন্ট্রাপ্রেনিউরশিপ সামিট ২০২৩- নিয়ে উই প্রতিষ্ঠাতা ও প্রেসিডেন্ট নাসিমা আক্তার নিশা বলেন, ‘অনেকেই বলেন নারীরা নারীদের ভালো দেখতে পারেন না। কিন্তু আমরা এ ধারণা ভেঙে দিতে চাই। উই সেটা ভেঙে দিতে কাজ করছে। আমরা নারী উদ্যোক্তাদের সমস্যা চিহ্নিত করতে অনেক আগে থেকে কাজ করছি। আমরা পলিসি ডায়ালগ করে তাদের সুবিধা অসুবিধা বোঝার চেষ্টা করেছি। সেসব কিছু নিয়েই আমাদের এই সামিট আয়োজন।’

তিনি আরও বলেন, সামিটে সারা দেশের নারী উদ্যোক্তাদের সমস্যা, অসুবিধা, বিড়ম্বনাসহ নানা বিষয় নিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ নীতিমালা তৈরির বিষয়েও জোর দেওয়া হবে। আমরা চাই, প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে উঠে আসা নারী উদ্যোক্তরাও এই সামিটের মাধ্যমে তাদের অবস্থান শক্ত করতে কাজ করার সাহস পাবেন।’

ডিএমপি সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশন সিটিটিসির এডিসি নাজমুল ইসলাম, আইসিটি অধিদপ্তরের ডিজি মোস্তাফা কামাল, ডন সামদানী ফ্যাসিলিটিশন কনসালটেশনের গোলাম সামদানী ডন, টেন মিনিট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা আয়মান সাদিক, দারাজের সিওও খন্দকার তাসফিন আলম, যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের ইকোনোমিক অফিসার জেমস গার্ডিনার, ডা. সুষমা রেজা, রাজশাহীর বিভাগীয় কমিশনার দেওয়ান মোহাম্মদ হুমায়ন কবীর, এটুআইয়ের পলিসি অ্যাডভাইসার আনীর চৌধুরী, পুচি ফ্যামিলির ওনার তাপসি দাস, ডান অ্যান্ড ব্র্যান্ডস্ট্রিট ডেটা অ্যান্ড অ্যানালিটিক্সের সিইও জারা মাহবুব, এসআর ভেঞ্চার অ্যান্ড কনসালটেন্সির সিইও সায়মা রহমান, ডেইলি স্টারের প্রধান বিজনেস কর্মকর্তা তাজদিন হাসান, লেখক ও পরিচালক সাদাত হোসাইনসহ আরও অনেকেই দুই দিনের এই সামিটে আলোচক হিসেবে অংশ নেবেন।

এছাড়া এজেআই গ্রুপের চেয়ারম্যান অ্যান্ড এমডি অনন্ত জলিল, চলচ্চিত্র অভিনেত্রী আফিয়া নূসরাত বর্ষা, আফসানা মিমি, আফসানা আরা বিন্দু, জাকিয়া বারি মম, রুনা খান, মাসুমা রহমান নাবিলা প্রমুখ এর অংশগ্রহণ এবারের আয়োজনকে ভিন্ন মাত্রা দেবে।

নাসিমা আক্তার নিশা জানান, দুই দিনের সামিট শেষ হবে শনিবার রাতে উই উদ্যোক্তাদের ফ্যাশন শো-এর মাধ্যমে।

এবারের আয়োজনে প্ল্যাটিনাম স্পন্সর হিসেবে রয়েছে দারাজ ও ফ্রেশ অনন্যা স্যানিটরি ন্যাপকিন। এছাড়া পেমেন্ট পার্টনার হিসেবে বিকাশ, ব্যাংকিং পার্টনার হিসেবে প্রাইম ব্যাংক, ইন্স্যুরেন্স পার্টনার হিসেবে গ্রিন ডেলটা ইন্স্যুরেন্স, নিউট্রিশন পার্টনার হিসেবে থাকছে শক্তি। তাছাড়ও পার্টনার হিসেবে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ, রানার মোটরসাইকেল, ই-ক্যাব, ফ্লোরা টেলিকম এবং লাইভ ব্রডকাস্ট পার্টনার হিসেবে থাকছে ঢাকা লাইভ।

spot_img
আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

সর্বাাধিক পঠিত

spot_img