Wednesday, April 24, 2024
spot_img
Homeগ্যাজেটসঅল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ সুবিধাসহ ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো

অল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ সুবিধাসহ ইনফিনিক্স নোট ৩০ প্রো

বাংলাদেশের তরুণদের পছন্দের স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ইনফিনিক্সের নিয়ে এলো নোট সিরিজের নতুন স্মার্টফোন নোট ৩০ প্রো। অল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ সুবিধাযুক্ত সাশ্রয়ী মূল্যের এই ফোনটিতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, দারুণ চার্জিংয়ের সক্ষমতা এবং স্বচ্ছন্দ ব্যবহারের অভিজ্ঞতার মিশ্রণ ঘটেছে।

নোট ৩০ প্রো-তে আছে বৈপ্লবিক চার্জিং সমাধান, অল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ। এতে ব্যবহারকারীরা পাচ্ছেন অতুলনীয় গতি, নিরাপত্তা, বুদ্ধিমত্তা ও স্বচ্ছন্দ ব্যবহারের সুবিধা। ৬৮ ওয়াট ওয়্যারড ফাস্টচার্জের ফলে নোট ৩০ প্রো মাত্র ৩০ মিনিটেই ১% থেকে ৮০% চার্জ হতে পারে। এতে ব্যবহারকারীরা সারাদিন ধরে নিরবচ্ছিনভাবে ফোন ব্যবহার করা চালিয়ে যেতে পারেন। পাশাপাশি, এর ১৫ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিং প্রযুক্তি বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারে রাতভর নিরাপদ চার্জ প্রদান করতে সক্ষম।

এছাড়াও, ফোনটিতে আছে বাইপাস চার্জিং প্রযুক্তি। যা সরাসরি মূল বোর্ডে বিদ্যুৎপ্রবাহ ফিল্টার করতে পারে, ফলে গেমিংয়ের মতো কাজের সময়েও ফোন থাকে ঠান্ডা। এর ওয়্যারড ও ওয়্যারলেস রিভার্স চার্জ সুবিধার কারণে ফোনটি অন্যান্য ডিভাইসের জন্য পাওয়ার ব্যাংক হিসেবেও কাজ করতে পারে। দ্রুত ও নিরাপদ চার্জ করার পাশাপাশি নোট ৩০ প্রো-র চার্জার পিডি ৩.০ অ্যাগ্রিমেন্টসম্পন্ন অন্যান্য যেকোনো ডিভাইসকেও দ্রুত চার্জ করতে সক্ষম। অর্থাৎ, একটি চার্জার এখন একাধিক ডিভাইসকে চার্জ করতে পারবে। নোট ৩০ প্রো-র এআই মডেল রাতের বেলা ফোনটিকে ৮০% পর্যন্ত এবং ঘুম থেকে ওঠার আগেই সম্পূর্ণ চার্জ করতে পারে। এতসব ফিচার নিয়ে নোট ৩০ প্রো চার্জিং প্রযুক্তিতে নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ব্যবহারকারীদের ফোন চালানোর উন্নত অভিজ্ঞতা দিতে নোট ৩০ প্রো-তে আছে ১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের ১০-বিট অ্যামোলেড ডিসপ্লে। এতে আরও আছে আল্ট্রা-থিন বেজেল এবং স্টিরিও ডুয়েল স্পিকার, যা জেবিএল দ্বারা সাউন্ড-টিউন করা এবং হাই-রেজ দ্বারা প্রত্যায়িত। এসব ফিচারের ফলে ব্যবহারকারীরা পাবেন আরও অনন্য অডিও-ভিজ্যুয়াল অভিজ্ঞতা।

মিডিয়াটেক হেলিও জি৯৯ প্রসেসর দ্বারা চালিত ফোনটিতে আরও আছে ভেপার-চেম্বার লিকুইড কুলিং প্রযুক্তি। যা নিশ্চিতভাবেই প্রভাব রাখবে ফোনটির পারফরম্যান্সে। ব্যাটারি কার্যকারিতা বাড়ানোর জন্য এতে আছে ৬ ন্যানোমিটারের প্রসেসসহ শক্তিশালী অভ্যন্তরীণ যন্ত্রাদি। ফলে ব্যবহারকারীরা স্বচ্ছন্দে গেমিং ও মাল্টিমিডিয়া ব্যবহারসহ বিভিন্ন ধরনের কাজ নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে পারবেন। এছাড়া, নোট ৩০ প্রো-তে আছে উদ্ভাবনী আল্ট্রা পাওয়ার সিগন্যাল (ইউপিএস) প্রযুক্তি। দুর্বল সিগন্যাল পরিস্থিতিকে অপ্টিমাইজ করে ফোনটি উল্লেখযোগ্যভাবে সেলুলার ও ওয়াইফাই সিগন্যালের শক্তি বৃদ্ধি করে। যা নিরবচ্ছিন্ন সংযোগ এবং একটি নির্বিঘ্ন বিনোদন অভিজ্ঞতার নিশ্চয়তা দেয়।

ফটোগ্রাফিতে আগ্রহীদের জন্য নোট ৩০ প্রো-তে আছে ট্রিপল ক্যামেরা সিস্টেম। ১০৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-হাই-পিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা এবং ৩২ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা নিয়ে ফোনটি যেকোনো পরিস্থিতে ভালো মানের ছবি প্রদানে এগিয়ে থাকবে। এতে আরও আছে ৮ জিবি+২৫৬ জিবি মেমোরি এবং আপগ্রেডেড এক্সটেন্ডেড র‍্যাম প্রযুক্তি। অ্যান্ড্রয়েড ১৩ এর ওপর গঠিত এক্সওএস ৩ প্রযুক্তি দ্বারা চলে ফোনটি। ফলে ব্যবহারকারীরা পাবেন চমৎকার একটি ইউজার ইন্টারফেস। ইনফিনিক্সের এই অল-রাউন্ড প্যাকেজ পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ২৭,৯৯৯ টাকায়। ওয়্যারলেস চার্জারটি আলাদা কিনতে হবে। যার জন্য গ্রাহককে খরচ করতে হবে মাত্র ২,০০০ টাকা।

নোট ৩০ প্রো এবং নোট ৩০ মডেল নতুন নোট ৩০ সিরিজের অন্তর্ভুক্ত। নোট ৩০ তে ৪৫ ওয়াট অল-রাউন্ড ফাস্টচার্জ, ৬৪ এমপি প্রাইমারি ক্যামেরা এবং ১৬ এমপি সেলফি ক্যামেরা আছে। নোট ৩০-র ৮ জিবি+১২৮ জিবি এবং ৮ জিবি+২৫৬ জিবি-এ দু’টি ভার্সন পাওয়া যাচ্ছে যথাক্রমে ১৮,৯৯৯ ও ২৩,৯৯৯ টাকায়। ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের সক্ষমতা এই মডেলটিতে নেই। তবে এই ফিচারটি ছাড়া ফোনের অন্যান্য সব ফিচার নোট ৩০ প্রো এর মতোই।

spot_img
আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

সর্বাাধিক পঠিত

spot_img