Thursday, February 2, 2023
spot_img
Homeইভেন্টঅনুষ্ঠিত হলো ডিজিটাল সামিট ২০২২

অনুষ্ঠিত হলো ডিজিটাল সামিট ২০২২

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আয়োজনে শনিবার, ১৭ই ডিসেম্ব্‌র, ঢাকার লা মেরিডিয়ান হোটেলের গ্র্যান্ড বলরুমে ৯ম ডিজিটাল সামিট অনুষ্ঠিত হয়। মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পরিবেশনায়, এইচটিটিপুল বাংলাদেশ লিমিটেডের পৃষ্ঠপোষকতায়, অ্যাডজাস্ট এবং দ্য ডেইলি স্টারের সম্পৃক্ততায়, ডিজিটাল সামিটের এই বছরের থিম ছিলো ‘’উইনিং দ্যা ডিজিটাল এইজ’’ ।

৪টি কিনোট সেশন, ৪টি প্যানেল ডিসকাশন, ২টি ইনসাইট সেশন এবং ১টি কেস স্টাডির সমন্বয়ে এই বছরের ডিজিটাল সামিট পরিচালিত হয়।

দেশ-বিদেশের বিশেষজ্ঞ বক্তাদের অংশগ্রহণ এবং আলোচনা ও মতামত বিনিময়ের একটি অন্যতম উপলক্ষ হয়ে উঠে নবম ডিজিটাল সামিট।

সামিটটির স্বাগত বক্তব্যেই বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের ডিরেক্টর এবং ক্রিয়েটিভ এডিটর, নাজিয়া আন্দালিব প্রিমা বলেন, “কোভিড পরবর্তী বাস্তবতা ডিজিটাল বিশ্বের প্রকৃত সম্ভাবনাকে আমাদের কাছে উন্মোচন করেছে। তাই এখনই উপযুক্ত সময় ডিজিটাল বিশ্বের সুবিধা গুলোকে সঠিকভাবে প্রয়োগ করা। তবে কোনো সুবিধাই কিছু চ্যালেঞ্জ ছাড়া আসে না। তাই বিশেষজ্ঞদের একটি প্রধান দায়িত্ব থাকবে এই চ্যালেঞ্জ গুলোকে সঠিকভাবে মোকাবেলা করা।”

দিনব্যাপী ইভেন্টের বিভিন্ন আলোচনায় প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠে ডিজিটালি বিভক্ত এই সময়ে ক্রিয়েটিভিটি এবং স্ট্রাটেজির গুরুত্ব, মার্কেটারের কাজে অ্যাসেট হিসেবে ডেটার গুরুত্ব, দীর্ঘকালীন ইনফ্লুয়েন্সার পার্টনারশিপের অপরিহার্যতা এবং মেটাভার্সে ব্র্যান্ড মার্কেটিংয়ের সমূহ সম্ভাবনা।

প্রাইভেসি নিয়ে আলোচনায় প্রথম কিনোট সেশনে ম্যাথিউ ব্রুনিয়ার বলেন, “প্রাইভেসি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কেননা, ব্যবহারকারীরা এই ব্যাপারে সচেতন। ৬৪% ব্যবহারকারীই ডেটার বিষয়ে কম্পানী প্রদেয় তথ্যে নির্ভর করে না। প্রাসঙ্গিক এবং প্রয়োজনীয় ইউজার এক্সপেরিয়েন্সের জন্য ডেটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।”

মাহফুজ সিদ্দিকী এফআরএসএ, প্রথম প্যানেল আলোচনায় বলেন, “কমিউনিকেশনে ধরণে এই প্রথমবার, ভোক্তারা নিয়ন্ত্রণে আছে। এযাবতকালে কর্মরত এবং ভবিষ্যতে সম্ভাব্য সকল প্ল্যাটফর্মের সাথে সামঞ্জস্য বজায় রাখা সম্ভব নয়। তাই গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে একটি প্ল্যাটফর্ম নিরপেক্ষ স্ট্র্যাটেজি নিশ্চিত করা এবং সেই অনুযায়ী প্ল্যাটফর্ম পরিচালনা করা।

ডিজিটাল সামিট ২০২২ এ কিনোট স্পিকার হিসেবে উপস্থিত ছিলেনঃ কাজী মনিরুল কবির, কান্ট্রি ডিরেক্টর, এইচটিটিপুল বাংলাদেশ লিমিটেড; ম্যাথিউ ব্রুনিয়ার, পার্টনার ডিরেক্টর, মিডিয়াম গ্রুপ বাই আলেফ, আলেফ গ্রুপ, ইনক.; অলিভার উইলকে, রিজিওনাল ডিরেক্টর, সাউথ ইস্ট এশিয়া, এস্কিমি; এবং সোলায়মান আলম, চিফ ডিজিটাল অ্যান্ড স্ট্র্যাটেজি অফিসার, গ্রামীণফোন লিমিটেড।

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম ২০১৪ সালে ডিজিটাল সামিটের সূচনা করে। ধারাবাহিক সফলতার মাধ্যমে, ডিজিটাল সামিট দেশের ডিজিটাল মার্কেটারদের জন্য শীর্ষ একটি প্ল্যাটফর্মে পরিণত হয়েছে। এই বছরের সামিটে ৩৫০ জনেরও বেশি পেশাদার ব্যক্তিত্ব অংশগ্রহণ করেছেন। এ বছরের সামিটের প্রধান লক্ষ্য ছিলো ডিজিটাল মার্কেটিং ইন্ড্রাস্টির চ্যালেঞ্জগুলোকে বিশেষজ্ঞ আলোচনার মাধ্যমে তুলে ধরা এবং অভিজ্ঞতা, জ্ঞান ও মত বিনিময়ের মাধ্যমে সম্ভাবনাময় এই ইন্ডাস্ট্রিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ধারা বজায় রাখা।

সামিটে উপস্থিত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য বক্তারা ছিলেন: অর্চনা রোচ, গ্লোবাল মেজারমেন্ট লিড, এইচটিটিপুল; ভিনিত ভি. জর্জ, সেলস ম্যানেজার, অ্যাডজাস্ট; জোশুয়া অধিকারী, রিজিওনাল গ্রোথ ম্যানেজার, সাউথ এশিয়া, এস্কিমি; মুনাফ মজিব চৌধুরী, পার্টনার ডিরেক্টর, এইচটিটিপুল বাংলাদেশ লিমিটেড; তুসনুভা আহমেদ টিনা, এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর, মাইন্ডশেয়ার বাংলাদেশ; মাহফুজ সাদিক এফআরএসএ, চিফ কমিউনিকেশনস অফিসার, বিকাশ লিমিটেড; নাজিম ফারহান চৌধুরী, ম্যানেজিং ডিরেক্টর, অ্যাডকম লিমিটেড; শারমিন রহমান, হেড অব কর্পোরেট ব্র্যান্ড অ্যান্ড এনগেজমেন্ট, একটিং হেড অব মার্কেটিং, গ্রামীণফোন লিমিটেড; উরফি আহমেদ, ব্র্যান্ডস অ্যান্ড কমিউনিকেশন ডিরেক্টর, বাংলালিংক; ইশরাক ঢালী, ডিরেক্টর, অ্যাকাউন্টস অ্যান্ড সার্ভিসিং, ম্যাগনিটো ডিজিটাল; শামীম জামান, হেড অব ব্র্যান্ডস অ্যান্ড মার্কেটিং কমিউনিকেশন, রবি আজিয়াটা লিমিটেড; শরফুদ্দিন ভূঁইয়া শ্যামল, হেড অব মার্কেটিং, ট্রান্সকম বেভারেজেস লিমিটেড; নুসরাত জাহান, মার্কেটিং ডিরেক্টর, রেকিট বাংলাদেশ; তাজদিন হাসান, চিফ বিজনেস অফিসার, দ্য ডেইলি স্টার; আরিফুল বাশার, অ্যাসোসিয়েট ভাইস প্রেসিডেন্ট, ডিজিটাল বিজনেস

লিড, গ্রে অ্যাডভারটাইজিং বাংলাদেশ লিমিটেড; লুৎফি চৌধুরী, কো-ফাউন্ডার এবং চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার, অ্যাডফিনিক্স; বৈভব কাটচ, সিনিয়র পার্টনারশিপ ম্যানেজার, অ্যাডজাস্ট; সানজিদ হোসেন, ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন অ্যান্ড গ্রোথ মার্কেটিং কনসালটেন্ট; জিশান কিংশুক হক, চেঞ্জমেকার, সিএক্সও এবং এন্টারপ্রেনার; রিসালাত সিদ্দিকি, দ্য ম্যান অব স্টিল (চেয়ারম্যান), অ্যানালাইজেন বাংলাদেশ লিমিটেড; মুকিত আহমেদ, হেড অব ব্র্যান্ড মার্কেটিং অ্যান্ড কমিউনিকেশনস, বাংলালিংক ডিজিটাল কমিউনিকেশনস লিমিটেড; এবং কাজী মহিউদ্দিন, সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার, ব্র্যান্ড, মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ।

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ডিজিটাল সামিট ২০২২ এর পরিবেশনায় ছিলো মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ, পৃষ্ঠপোষকতায় এইচটিটিপুল বাংলাদেশ লিমিটেড। অ্যাডজাস্ট এবং দ্য ডেইলি স্টারের সম্পৃক্ততায় আয়োজিত এই বছরের সামিটের সহযোগিতায় ছিলো অ্যাডফিনিক্স এবং এস্কিমি। স্ট্রাটেজিক পার্টনার- বাংলাদেশ ক্রিয়েটিভ ফোরাম; মিডিয়াম গ্রুপ বাই আলেফ; নলেজ পার্টনার- মার্কেটিং সোসাইটি অব বাংলাদেশ; টেকনোলজি পার্টনার – আমরা নেটওয়ার্কস লিমিটেড, ইভেন্ট পার্টনার – লা মেরিডিয়ান ঢাকা, পি আর পার্টনার – ব্যাকপেজ পিআর।

spot_img
আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

সর্বাাধিক পঠিত

spot_img