ভ্রমণ ফটোগ্রাফি সহজ করে দিচ্ছে ভিভো’র এক্স সিরিজ

vivo x70 pro

বাংলাদেশের স্মার্টফোন বাজারে ক্যামেরা প্রযুক্তিতে সব কিছুকে ছাড়িয়ে গেছে ভিভো’র সর্বশেষ সংযোজন ভিভো এক্স৭০প্রো (৫জি)। এর আগে দেশের বাজারে তুমুল সাড়া ফেলেছিলো ভিভো এক্স৬০প্রো।

ভিভো এক্স৭০প্রো (৫জি) – ফটোগ্রাফিতে নতুন মাত্রা

বর্তমান সময়ে পর্যটন ফটোগ্রাফির প্রতি ঝোঁক বেড়েছে তরুণ গ্রাহকদের। আর ঘুরতে গিয়ে সেরা ছবিটি তুলতে প্রিমিয়াম স্মার্টফোনের চাহিদাও এখন তুঙ্গে। চলমান পর্যটন ঋতুতে এখন তাই বেড়েছে ভিভো এক্স৭০প্রো (৫জি) এর চাহিদা। প্রিমিয়াম মানের এই স্মার্টফোনটি কিনতে এখন গ্রাহকরা ভিড় জমাচ্ছেন ভিভো বিক্রয় সেবাকেন্দ্রগুলোতে।

এডভান্স লেভেলের ফটোগ্রাফি এবং ভিডিওগ্রাফির ক্ষমতাসম্পন্ন এক্স৭০প্রো (৫জি)’তে রয়েছে ৫জি নেটওয়ার্কিং প্রযুক্তি। দূর্দান্ত ছবির জন্য রয়েছে বিখ্যাত লেন্স নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কার্ল জেইসের তৈরি লেন্স এবং টি* কোটিং প্রযুক্তি।

এছাড়াও স্মার্টফোনটিতে রয়েছে গিম্বল স্ট্যাবিলাইজার ৩.০ প্রযুক্তি, যা চলমান অবস্থায় স্থিও এবং স্পষ্ট ছবি ধারণে সহায়তা করবে। তাই, চলন্ত ট্রেন থেকে কিংবা সমুদ্রে স্পীডবোটে থেকেও রোমাঞ্চকর ছবি তোলা এখন আরো সহজ হবে।

ভিভো এক্স৭০প্রো (৫জি) ’র পেছনে চারটি ও সামনে একটি ক্যামেরা রয়েছে। বøু এবং বø্যাক এই দুই রঙের ফোনটিতে রয়েছে ৬.৫৬ ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস এমোলেড ডিসপ্লে।

আরো চমক

ভিভো এক্স৭০প্রো (৫জি)’তে রয়েছে ৩২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। রিয়ার-কোয়াড অ্যারোতে রয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেল+১২ মেগাপিক্সেল+ ১২ মেগাপিক্সেল+ ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা সেটআপ। বায়োটার, ডিস্টাগন, প্ল্যানার ও সোনার নামের জেইসের চারটি পোর্ট্রটে লেন্স ফিল্টার ব্যবহার করা হয়েছে এই ফোনটিতে।

স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ১২০০ ভিভো চিপ। এর সাথে আরও রয়েছে ৪৪৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার আওয়ার ব্যাটারির সাথে ৪৪ ওয়াট ফ্ল্যাশচার্জ প্রযুক্তি ও রয়েছে ফানটাচ ওএস ১২। দূর্দান্ত কনফিগারেশনের ব্যতিক্রমধর্মী এই স্মার্টফোনটি মোবাইল ও প্রফেশনাল ফটোগ্রাফির দুরত্ব কমিয়ে সকলের নজর কেড়েছে। ২০২১ সালের ১০ অক্টোবর রিলিজ হওয়া ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি বাংলাদেশে এক্স সিরিজের সবচেয়ে প্রিমিয়াম ফোন যার দাম ৭২,৯৯০ টাকা।

*

*