ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি: স্মার্টফোনের ক্যামেরায় বিপ্লব

vivo

দেশে যাত্রা শুরুর পরই বেশ আলোচনায় উঠে এসেছে ভিভো এক্স৭০ প্রো ৫জি। স্মার্টফোনটির ক্যামেরা প্রযুক্তি নজর কেড়েছে পেশাদার ফটোগ্রাফি ও সিনেমাটোগ্রাফারদের। বিশ্বখ্যাত লেন্স নির্মাতা প্রতিষ্ঠান কার্ল জেইসের সমন্বয়ে স্মার্টফোনটির ক্যামেরায় ব্যবহৃত অপটিক্যাল প্রযুক্তি ছবি ও ভিডিও ধারণকে করেছে দুর্দান্ত। যা বদলে দিচ্ছে স্মার্টফোন দিয়ে ফটোগ্রাফি ও সিনেমাটোগ্রাফির ধারণা।

গত মাসে স্মার্টফোনটি দেশে এনেছে গ্লোবাল স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভিভো। ছবি তোলা ও ভিডিও ধারণ করার ক্ষেত্রে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি। এরই মধ্যে স্মার্টফোনটি দিয়ে অতি পরিচিত পরিচালক ভিকি জাহেদ সম্প্রতি নির্মাণ করেছেন শর্টফিল্ম ‘অ্যা হ্যাপি ম্যান।’

ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি স্মার্টফোনের চারটি ক্যামেরায় ব্যবহার করা হয়েছে জেইসের লেন্স। ক্যামেরার লেন্স নির্মাণে বিশ্বজুড়ে ১৭৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে সুনামের সাথে কাজ করছে কার্ল জেইস।

ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে স্মার্টফোনটিতে রয়েছে জেইস স্টাইল পোর্ট্রেটস প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তির আওতায় স্মার্টফোনটিতে যুক্ত করা হয়েছে জেইসের চারটি পোর্ট্রইেট ক্যামেরা লেন্সের আদলে- বায়োটার, ডিসটাগন, প্ল্যানার, এবং সোনার।

বোকেহ শিল্পের জন্য বায়োটার

ছবিতে বোকেহর প্রভাব এখন বেশ জনপ্রিয়। নান্দনিকভাবে বোকেহ ফুটিয়ে তোলার জন্য কাজ করে বায়োটার লেন্স। পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফারদের কাছে এই লেন্স খুব পছন্দের। বৈচিত্র্যপূর্ণ ও সৃজনশীল ছবির জন্য সাহায্য করে বায়োটার লেন্স।

ফ্রেমজুড়ে ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের জন্য ডিস্টাগন

ডিস্টাগন স্টাইলের মাধ্যমে ছবির অ্যানামরফিক লুক পাওয়া যায়; যা বেশ নান্দনিক। হলিউডের ফিল্মমেকারদের এটা খুব পছন্দের। যার জন্য একে ‘হলিউড ডিস্টাগন’ও বলা হয়। এটি বেশ তীক্ষè ইন-ফোকাস ও আউট-অব-ফোকাসসহ ক্লাসিক কাঠামো তৈরি করে যা ছবিটিকে বেশ বড় ও আকর্ষণীয় দেখায়।

 জাদুকরি ছবি পেতে প্ল্যানার

ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি স্মার্টফোনে প্ল্যানার লেন্স ছবির নির্দিষ্ট বিষয়ের ওপর ফোকাস করে এবং প্রোট্রেট ফটোগ্রাফিতে প্রকৃত অভিব্যক্তি প্রকাশ করে। সৃজনশীল দৃশ্য ধারণে সিনেমায় এই লেন্সের ব্যবহার বেশ গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে ক্যামেরায় ধরা পড়া বিষয়বস্তুর ফোরগ্রাউন্ডকে ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আলাদা করতে এই লেন্স ব্যবহার করা হয়। প্ল্যানার লেন্স কম আলোতে ক্লিক করতে সক্ষম। ইমেজের ভারসাম্য বজায় রেখে রঙকে দারুণভাবে ফুটিয়ে তোলে।

ছবিকে জীবন্ত করে তোলে সোনার

মুহূর্তটাকে হুবহু ক্যামেরাবন্দী করতে সোনার লেন্সের বিকল্প নেই। বিষয়বস্তুর গভীরে গিয়ে সুক্ষèভাবে মুহূর্তটাকে ক্যাপচার করে আনতে পারে সোনার। বৃষ্টি হোক বা আকাশের অবস্থা যাই হোক সত্যিকার মুহূর্তকে ধারণ করতে পারে সোনার। যেকোনো আবহাওয়ায় মুহূর্তকে জীবন্তভাবে তুলে ধরতে এর বিকল্প নেই।

ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে কসমিক ব্ল্যাক ও অরোরা ব্রাউন রঙে। দাম ৭২,৯৯০ টাকা।

*

*