পছন্দের তালিকায় ভিভো ওয়াই৫৩এস

vivoy53x

সম্প্রতি বাংলাদেশের বাজারে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে বহুজাতিক স্মার্টফোন নির্মাতা কোম্পানি ভিভো’র নতুন স্মার্টফোন ভিভো ওয়াই৫৩এস। ভিভো জানিয়েছে, তাদের ওয়াই সিরিজের ক্রেতাদের মধ্যে সিংহভাগই তরুণ ক্রেতা।

ভিভো ওয়াই৫৩এস স্মার্টফোনে থাকা তরুণদের পছন্দের ৫ ফিচার তুলে ধরা হলো-

৬৪ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা- ছবিতে বেশি বেশি ডিটেইল পাওয়ার জন্য প্রয়োজন বেশি মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ভিভো ওয়াই৫৩এস স্মার্টফোনের সামনে একটি এবং পেছনে ৩টি ক্যামেরা রয়েছে। সেলফি ক্যামেরাটি ১৬ মেগাপিক্সেলের এবং রিয়ার ক্যামেরাগুলোর মধ্যে মেইন ক্যামেরাটি ৬৪ মেগাপিক্সেলের, সাথে আরও রয়েছে ০২ মেগাপিক্সেলের একটি সুপার ম্যাক্রো এবং ০২ মেগাপিক্সেলের আরও একটি পোট্রেইট ক্যামেরা; যা সূক্ষ্ম ও পরিস্কার ছবি তুলতে সাহায্য করবে।

মিডরেঞ্জে এক্সটেন্ডেড র‌্যাম ও এক্সপান্ডেবল রম- স্মার্টফোনে অধিক র‌্যাম বা রম বর্তমানে তরুণদের চাহিদার শীর্ষে। এর মধ্যে এক্সটেন্ডেড র‌্যাম সুবিধা এখন তাদের অন্যতম পছন্দ। কিন্তু দামের কথা চিন্তা করে অনেকেই হয়তো বেশি র‌্যাম অথবা রমের স্মার্টফোন কিনতে পারেন না। সেসব তরুণদের জন্যেই এক রকম চমক হয়ে এসেছে ভিভো ওয়াই৫৩এস। মিডরেঞ্জের এই স্মার্টফোনটিতে বাই-ডিফল্ট ৮ জিবি’র র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম থাকলেও পরে এই দুইটিই সহজেই বাড়ানো যাবে। ৮ জিবি র‌্যামকে ভার্চুয়ালি ৪ জিবি এক্সটেন্ড করে ১২ জিবি এবং ১২৮ জিবি রমকে এক্সপান্ড করা যাবে ১ টেরাবাইট পর্যন্ত। ফলে, প্রায় দ্বিগুণ পরিমাণ অ্যাপ ব্যাকগ্রাউন্ডে চালানো যাবে স্মার্টফোনটিতে।

ব্যাটারিতে ভরসা- সহজলভ্য দামে প্রতিনিয়ত ভালো ব্যাটারি সাপোর্ট পাওয়া এক রকম স্বপ্নের মতো। বাস্তবতা যখন এমন, তখন মিডরেঞ্জের স্মার্টফোন সেগমেন্টে ভিভো ওয়াই৫৩এস নিয়ে এসেছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি; সঙ্গে রয়েছে ৩৩ ওয়াটের ফ্ল্যাশ চার্জিং প্রযুক্তি। এই চার্জিং প্রযুক্তির সাহায্যে ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যাবে আরো বেশি সময় পর্যন্ত। এমনকি ভিভো ওয়াই৫৩এস মাত্র ৪১ মিনিটে ৭০% এবং ৭৪ মিনিটে ১০০% চার্জ হবে। এছাড়া অনলাইন ভিডিও স্ট্রিমিং করা যাবে ১৪.৩০ ঘন্টা এবং অনলাইনে এইচডি গেইম খেলা যাবে ৭ ঘন্টা।

সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও ফেইস আনলক প্রযুক্তি- ভিভো ওয়াই৫৩এস’তে সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রযুক্তি যুক্ত করা হয়েছে। এতে এক সেকেন্ডেরও কম সময়ের মধ্যে (০.২৪ সেকেন্ড) স্মার্টফোনটি আনলক করা যাবে। এছাড়াও স্মার্টফোনটি আনলক করার জন্য রয়েছে ফেইস আনলক প্রযুক্তি। ব্যবহারকারী নিজের চেহারার সামনে ফোনটি ধরলে তা আনলক হয়ে যাবে।

মাল্টি টারবো ফিচার- স্মার্টফোনে গেমিং প্রিয় তরুণরা এখন স্মার্টফোন কিনতে গেলেই, খোঁজ করে মাল্টি টারবো ফিচারের স্মার্টফোন। ভিভো ওয়াই৫৩এস স্মার্টফোনটির মাল্টি টারবো ফিচার একদিকে গেমিংকে স্মুথ করে, অন্যদিকে মোবাইলের তাপমাত্রাও স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে। ফলে, অনেক সময় ধরে গেইম খেললেও স্মার্টফোনে কোনো সমস্যা হয় না।

এতসব দারুণ প্রযুক্তি নিয়ে আসা ভিভো ওয়াই৫৩এস পাওয়া যাচ্ছে মাত্র ২২ হাজার ৯৯০ টাকায়।

*

*