কেন কিনবেন ভিভো এক্স৬০প্রো

vivo x60 pro

স্মার্টফোন ব্যবহার করতে গিয়ে ব্যবহারকারীরা হরহামেশাই নানারকম বিপত্তিতে পড়েন। অফিসের কোনো বড় ফাইল নামাতে গিয়ে দেখেন, ফোনে জায়গা নেই, বেশ কয়েক ঘন্টার জন্যে বাইরে বেরিয়ে দেখেন প্রিয় ফোনটিতে চার্জ নেই! কিংবা ব্যবহৃত ক্যামেরাটি ঠিক মনের মতন নয়! অথবা চট করে দুরন্ত কোনো মূহুর্ত ক্যাপচার করতে গিয়ে দেখেন, ছবি ঝাপসা হয়ে গেছে!

নিত্যদিন এমনি বিভিন্ন বিপত্তির মুখোমুখি হন একজন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী। তাহলে এর সমাধান কি? স্মার্টফোন কিনতে গিয়ে এখন একজন স্মার্টফোন ব্যবহারকারী কোন বিষয়গুলো খেয়াল রাখবেন? কিভাবে বুঝবেন কোন স্মার্টফোনে তার সবগুলো চাহিদাই মিটবে ?

এসব প্রশ্নের উত্তর- ভিভো এক্স৬০প্রো। চলতি মাসে বাজারে আসা স্মার্টফোনগুলোর মধ্যে অন্যতম তাক লাগানো স্মার্টফোন এটি। পাঠকদের সুবিধার জন্যে ভিভো এক্স৬০প্রো’র সেরা ৫ বৈশিষ্ট্য নিয়ে আমাদের আজকের আয়োজন-

ভিভো-জেইসের যৌথ প্রকৌশলে ক্যামেরা লেন্স : ক্যামেরা দিয়েই শুরু করা যাক। কারণ প্রকৃত অর্থে, ভিভো এক্স৬০প্রো’র মূল আকর্ষণ ক্যামেরায়। এক জরিপে দেখা যায়, স্মার্টফোনে তোলা ৬০ ভাগ ছবিই নষ্ট হয়ে যায় ছবি ঝাপসা ওঠার কারণে। এজন্যে ভিভো এক্স৬০প্রো’তে ভিভো যুক্ত করেছে গিম্বল স্টেবিলাইজেশন ২.০ প্রো প্রযুক্তি, যা ক্লিন এন্ড ক্লিয়ার ছবি তুলতে সহায়তা করে। সুতরাং চলন্ত অবস্থায় ছবি তুলতে গেলেও ছবি কেঁপে গিয়ে ঝাপসা হয়ে যাবে না। অন্যদিকে ভিভো ও জেইসের যৌথ প্রকৌশলে তৈরি বিশেষ ইমেজিং সিস্টেমের লেন্সও যুক্ত হয়েছে ভিভো এক্স৬০প্রো ফোনে। ফলে ভিভো এক্স৬০প্রো’তে শুধু প্রফেশনাল ফটোগ্রাফিই করা যাবে না, করা যাবে সিনেমাটোগ্রাফিও। এছাড়া ভিভো এক্স৬০ প্রো’র ক্যামেরা অ্যাপারচারও বাজারে থাকা অন্য স্মার্টফোনগুলোর চাইতে সবচেয়ে বড়। ফলে ক্যামেরায় প্রচুর আলো প্রবেশ করতে পারে। তাই শুধু দিনের বেলা’ই না; রাতেও পরিস্কার ও ঝকঝকে ছবি উঠবে ভিভো এক্স৬০প্রো’র সুপার নাইট ক্যামেরা ২.০ তে।

স্টোরেজ: উন্নত ক্যামেরা প্রযুক্তি’র পাশাপাশি ভিভো এক্স৬০প্রো’তে রয়েছে বিশাল স্টোরেজও। ভিভো এক্স৬০প্রো’র র‌্যাম ১২ জিবি এবং রম ২৫৬ জিবি। মজার ব্যাপার হলো, ব্যবহারকারীরা চাইলে এই রমের সাহায্য নিয়ে তিন জিবি র‌্যাম বাড়াতে পারে। অর্থাৎ মাল্টিটাস্কিং এর প্রয়োজনে ১৫ জিবি র‌্যামও এই ফোনে ব্যবহার করা সম্ভব।

চার্জিং প্রযুক্তি: ৪২০০ এমএএইচ ব্যাটারির সঙ্গে ভিভো এক্স৬০প্রো’তে রয়েছে ৩৩ ওয়াটের ফ্ল্যাশ চার্জিং প্রযুক্তি। ফলে স্মার্টফোনটি চার্জ হবে দ্রুতবেগে এবং চার্জ থাকবেও অনেক দীর্ঘ সময় ধরে।

নেটওয়ার্ক: বাংলাদেশে ভিভো’র প্রথম ৫জি প্রযুক্তি স্মার্টফোন ভিভো এক্স৬০প্রো। দেশে মাত্র অল্প কিছু ব্রান্ডের ফোনে ৫জি সুবিধা রয়েছে। ৫জি সুবিধা থাকার কারণে ভিভো এক্স৬০প্রো’তে খুব দ্রুত ডাউনলোড করা সম্ভব হবে। একটি ভালো সংযোগে একটি মুভি ডাউনলোড করতে লাগবে মাত্র কয়েক সেকেন্ড। স্যোশাল মিডিয়া ব্যবহার করতে গিয়ে কোনো বাফারিং হবে না। আর যোগাযোগ হবে আরো সহজ এবং মসৃণ।

১২০ হার্জ রিফ্রেশ রেট: ভিভো এক্স৬০প্রো’তে রিফ্রেস রেট অনেক বেশি। প্রতি সেকেন্ডে ১২০ হার্জ রেটে রিফ্রেশ হয় ভিভো এক্স৬০প্রো। ফলে স্মার্টফোনটি দিয়ে একদিকে যেমনি অনেক বেশি প্রাণবন্ত অভিজ্ঞতা পাবেন, অন্যদিকে গেইমিং এর ক্ষেত্রে পাবেন চমৎকার পারফরম্যান্সের অভিজ্ঞতা। স্মার্টফোনটির স্ক্রিণ অনেক বেশি রেসপন্স বা সাড়া দেওয়ায়, যেকোনো গেইম দক্ষতার সাথে উপভোগ করতে পারবেন ভিভো এক্স৬০প্রো’র ব্যবহারকারীরা। বিশেষ করে, ভিভো এক্স৬০প্রো দিয়ে এনিমেশন গেইমসহ হাই-স্পিড মোশন গেইম খেলা যাবে খুব দারুণভাবে ।

বাংলাদেশে ভিভো এক্স৬০প্রো’র মূল্য ৬৯ হাজার ৯৯০ টাকা এবং পাওয়া যাবে কালো এবং নীল এই দুই ভিন্ন রঙে।

*

*