৫০ লাখ ডলার বিনিয়োগে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটিতে ভিডিও সার্ভিল্যান্স প্ল্যান্ট করবে সিডনিসান

sydney

সিডনিসান ইন্টারন্যাশনাল এবং তাদের টেকনোলজি অংশীদার চীনের ডাহুয়া গাজীপুরের কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটিতে ভিডিও সার্ভিল্যান্স উৎপাদন এবং সংযোজনন কারখানা স্থাপনের একটি প্লান্ট তৈরি করবে। এজন্য সামিট টেকনোপলিসে ৫ মিলিয়ন বা ৫০ লাখ মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে প্রতিষ্ঠানটি।

জানা গেছে, প্লান্টটি ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে সেমি নকড ডাউন (এসকেডি) ভিডিও সার্ভিল্যান্স সরঞ্জাম সংযোজন অ্যাসেম্বলি শুরু করবে। প্রাথমিকভাবে এ কারখানায় প্রায় ৯০ জন বাংলাদেশী প্রকৌশলী এবং ১০ জন বিদেশী বিশেষজ্ঞ কাজে নিয়োজিত থাকবেন। এখানকার উৎপাদিত পণ্য দেশের বাজারে সরবরাহের পাশাপাশি বিদেশেও রফতানি করা হবে।

এ লক্ষ্যে গতকাল বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম এনডিসি এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) সভাপতি মো. শাহিদ-উল-মুনীরের উপস্থিতিতে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

সামিট টেকনোপলিস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবু রেজা খান এবং সিডনিসান ইন্টারন্যাশনালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাগর কুমার টিটো সামিট টেকনোপলিসে এক একর জায়গায় ভিডিও সার্ভিল্যান্স ম্যানুফ্যাকচারিং প্লান্ট স্থাপনের জন্য ভূমি ইজারাসংক্রান্ত এ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

এ সময় অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন সামিট গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান লতিফ খান, পরিচালক ফাদিয়া খান এবং সালমান খানসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। উল্লেখ্য, সামিট টেকনোপলিস সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে (পিপিপি) বঙ্গবন্ধু হাই-টেক সিটির ৯১ একর জায়গায় তথ্যপ্রযুক্তি, তথ্যপ্রযুক্তিসংবলিত সেবাগুলো (আইটিইএস), দূষণমুক্ত ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যাসেম্বলি লাইন এবং ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিষ্ঠানগুলোর অবকাঠামো উন্নয়নে কাজ করছে। সামিট টেকনোপলিস এই ৯১ একর জায়গার নকশা, নির্মাণ, অর্থায়ন, সরকারের কাছে নিজস্ব পরিচালনা স্থানান্তরের শর্তের অধীনে ৬০ বছরের জন্য ইজারা পেয়েছে। অন্যদিকে ২০০৪ সালে প্রতিষ্ঠিত সিডনিসান ইন্টারন্যাশনাল দেশের সুরক্ষা এবং নজরদারি ভিডিও সমাধানের বৃহৎ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান এবং চীনের ডাহুয়া টেকনোলজির একমাত্র অনুমোদিত পরিবেশক।

*

*