২৬ অক্টোবর দেশে রোবট অলিম্পিয়াড ২০১৮

robot

শুরু হয়েছে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড ২০১৮ এর জাতীয় প্রতিযোগিতার  রেজিস্ট্রেশন। আগামী ডিসেম্বরে ফিলিপাইনে অনুষ্ঠেয় আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডের জন্য বাংলাদেশ দল নির্বাচনের জন্য আগামী ২৬ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে দেশে প্রথমবারের মতো এ আয়োজন অনুষ্ঠিত হবে। রোবট অলিম্পিয়াডের আয়োজক হিসেবে রয়েছে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের রোবটিকস ও মেকাট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ও বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন)।

আয়োজন সম্পর্কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রোবটিকস ও মেকাট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান লাফিফা জামাল জানান, প্রযুক্তির কল্যাণে সারা বিশে^ রোবটের ব্যবহার বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমাদের দেশের শিক্ষার্থীদের মাঝে রোবটের জটিল বিষয়গুলো সুন্দর ভাবে তুলে ধরার জন্য এ অলিম্পিয়াডের আয়োজন করা হয়েছে। আশা করি এ আয়োজনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মাঝে রোবটের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরতে পারবো। একই সঙ্গে রোবটের প্রতি শিক্ষার্থীদের আগ্রহ তৈরি করতে পারবো। রোবট অলিম্পিয়াড শুধুমাত্র বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের জন্য, এ আয়োজনে সব বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে পারবে। সারা দেশে থেকে বাছাইকৃত শিক্ষার্থীরা আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডে অংশগ্রহণে মাধ্যমে বিশ^ দরবারে নিজের দেশকে তুলে ধরার সুযোগ পাবে বলে জানান লাফিফা জামাল।

ইতিমধ্যে বাংলাদেশের ওপের সোর্স নেটওয়ার্কে সহযোগিতায় সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কর্মশালা আয়োজনের মাধ্যমে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াডের আঞ্চলিক পর্যায়ের আয়োজন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আঞ্চলিক পরিচয়মূলক কর্মশালা থেকে বাংলাদেশ রোবট অলিম্পিয়াড (বিডিআরও) মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাছাই করে প্রথমবারের প্রতিযোগিদের আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রতিযোগিতায় পাঠানো হবে।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, শিক্ষার্থীরা ‘রোবট গ্যাদারিং, ক্রিয়েটিভ ক্যাটাগরি এবং রোবট ইন মুভি’ এ তিনটি ক্যাটাগরিতে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে। অলিম্পিয়াডে ৭ থেকে ১৮ বছরের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করতে পারবে। প্রতিযোগিতার জন্য যারা রেজিস্ট্রেশন করবে তাদের জন্ম সন ২০০০/১১ এর মধ্যে হতে হবে। এর মধ্যে যাদের জন্মসন ২০০০ থেকে ২০০৫ এর মধ্যে তারা সিনিয়র ক্যাটাগরিতে এবং যাদের জন্মসন ২০০৬ থেকে ২০১১ এর মধ্যে তারা জুনিয়র ক্যাটাগরিতে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবে।

প্রতিযোগিদের রেজিস্ট্রেশনের করার সময় প্রমাণ হিসেবে জন্মসনদ দেখাতে হবে। এছাড়া রোবট, বেসিক কোডিং, এলগরিদম, ইলেক্ট্রনিক্সে আগ্রহ থাকতে হবে।

আয়োজকদের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয়, নির্ধারিত গুগল ফর্মে তথ্য পুরণের মাধ্যমে প্রতিযোগিদের নাম রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। নির্ধারিত বিকাশ নাম্বারে রেজিস্ট্রেশান ফি প্রদান করে গুগল ফর্মে ট্রাঞ্জেকশান আইডি দিতে হবে। বিকাশ নাম্বারঃ +৮৮-০১৭২১-১৯৭৬৭৬ (ব্যক্তিগত)। মিশন চ্যালেঞ্জ/রোবট গ্যাদারিং: ৩৫০ টাকা (একক)। ক্রিয়েটিভ ক্যাটাগরি ৫০০ টাকা (দলগত- সর্বোচ্চ ৩ জন)। রোবট ইন মুভি: ৫০০ টাকা (দলগত: সর্বোচ্চ ৩ জন) ফ্রি জমা দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। সফলভাবে রেজিস্ট্রশন করার পর প্রতিযোগিতায় অংগ্রহণের কনফার্মেশান মেইল পাঠানো হবে। সেই মেইলটিই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের প্রবেশপত্র। প্রতিযোগিরা সব্বোর্চ তিনটি ক্যাগাটরিতেই অংশগ্রহণ করতে পারবে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহনের জন্য শিক্ষার্থীরা রেজিস্ট্রশন করতে ক্লিক করুন https://bit.1y/2pKID9E  এ ঠিকানায়।

এছাড়া কোনো স্কুল/কলেজের বিডিআরও এর আঞ্চলিক অনুষ্ঠানে আয়োজন করতে চাইলে মেইল করতে পারেন bdro@bdosn.org এ ঠিকানায়।

প্রসঙ্গত, ডিসেম্বরে ফিলিপাইনে অনুষ্ঠেয় আন্তর্জাতিক রোবট অলিম্পিয়াডের বাংলাদেশে একটি টিম পাঠানো হবে। ঢাকায় অনুষ্ঠিত জাতীয় প্রতিযোগিতার মাধ্যমে সেরাদের বাছাই করা হবে। বাংরাদেশেসহ সারা বিশে^র ১৬টি সদস্য দেশসহ প্রায় ২২/২৩টি দেশে আন্তর্জাতিক এ সম্মানজনক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে।

রোবট অলিম্পিয়াড ২০১৮ এর স্পন্সর হিসেবে রয়েছে গিটাটেক লিমিটেড। পার্টনার হিসেবে রয়েছে সিরেনা টেকনোলজিস, ইন্টারনেট সোসাইটি বাংলাদেশে, বিজ্ঞান বিষয়ক ম্যাগাজিন বিজ্ঞানচিন্তা এবং আম্বার আইটি। মিডিয়া পার্টনার নাগরিক টিভি, ঢাকা এফএম ৯০.০৪।

*

*