০১৩ সিরিজের প্রথম কল পেলেন মোস্তফা জব্বার

013

বাংলাদেশের গ্রাহকদের সেবার জন্য ‘০১৭’ সিরিজের পাশাপাশি নতুন নম্বর সিরিজ ‘০১৩’ সিরিজ চালু করল গ্রামীণফোন।

নতুন সিরিজটি উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) মহাপরিচালক (ইঅ্যান্ডও) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মোস্তফা কামাল। অনুষ্ঠানে এই সময় উপস্থিত ছিলেন গ্রামীণফোনের ডেপুটি সিইও এবং ও ইয়াসির আজমান এবং চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন সহ প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা । ০১৩ সিরিজের একটি নম্বর দিয়ে প্রথম কলটি টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের কাছে করেন ইয়াসির আজমান।

টেলিফোনে কথা বলার সময় মাননীয় মন্ত্রী বলেন, ‘যে সাহসের সাথে আপনারা সারাদেশে নেটওয়ার্ক বিস্তার করেছেন তার জন্য আপনাদের ধন্যবাদ জানাই, আমার দৃঢ় বিশ্বাস যে এই বিপুল সংখ্যক গ্রাহকের জন্য সেবার মান বজায় রাখাও আপনাদের জন্য কঠিন হবে না। অত্যন্ত স্বল্প সময়ের মধ্যে ০১৩ নম্বর সিরিজ চালু করতে পারায় গ্রামীণফোনকে অভিনন্দন জানান প্রধান অতিথি। তিনি আশা করেন যে প্রতিষ্ঠানটি তাদের ‘সুনাম অনুযায়ী উন্নত সেবা বজায় রাখতে সক্ষম হবে’।’

১৯৯৭ সালের ২৬শে মার্চ গ্রামীণফোন যাত্রা করে। যাত্রার সূচনা করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকার অদূরের একটি গ্রামে লাইলি বেগমকে কল করার মাধ্যমে। আর এর পর থেকেই গ্রামীণফোন বাংলাদেশের টেলিযোগাযোগ খাতের অগ্রণী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়। বর্তমানে ৭১ মিলিয়ন গ্রাহকদের সেবা প্রদান করার মাধ্যমে এটি বিশ্বের সর্ববৃহৎ ২০টি টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় স্থান পেয়েছে।

গত ২১ বছরে দেশের ৯৯% জনগনকে উচ্চ গতি সম্পন্ন মোবাইল ইন্টারনেট সেবা প্রদান করার মাধ্যমে সর্ববৃহৎ নেটওয়ার্ক স্থাপন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। গ্রামীণফোন সবসময় তার গ্রাহকদেরকে অগ্রাধিকার প্রদান করে এবং নিরবচ্ছিন্ন উন্নত সেবা দেওয়ার জন্য প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। আর এজন্য ২০১৮ সালে ওকলা, দেশের দ্রুততম মোবাইল নেটওয়ার্ক হিসেবে ঘোষণা দেয় গ্রামীণফোনকে।

এই দীর্ঘ যাত্রায় গ্রামীণফোন গ্রাহকদের কাছ থেকে অকুন্ঠ ভালোবাসা পেয়েছে যার ফলে ০১৭ নম্বরের ব্যবপক চাহিদা সৃষ্টি হয় এবং ক্রমবর্ধমান চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে ০১৭ সিরিজের নম্বর শেষ হয়ে যেতে থাকে। গ্রামীণফোনের উন্নত নেটওয়ার্ক ও সেবা সেসব গ্রাহকরা উপভোগ করতে চেয়েছেন তাদের চাহিদা মেটাতে, ০১৭ সিরিজের নতুন নম্বরের অভাবে প্রতিষ্ঠানটি তাদের পুরাতন নম্বরগুলোকে পুন:ব্যবহার করে। এর প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠানটির অনুরোধ সাপেক্ষে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক কমিশন ০১৩ সিরিজের ২ কোটি নম্বর বরাদ্দ করে।

অনুষ্ঠানে ০১৩ নম্বর সিরিজ বরাদ্দ দেয়ায় রেগুলেটরকে ধন্যবাদ জানিয়ে  ইয়াসির আজমান বলেন, ‘সর্বোন্নত নেটওয়ার্ক, অভিনব সেবা এবং প্রতিযোগিতামূলক ট্যারিফ এর কারণে গ্রামীণফোন বাংলাদেশের সবচেয়ে কাঙ্খিত অপারেটর। বিগত ২১ বছর গ্রামীণফোন ০১৭ সিরিজ নিয়ে সারা দেশে মোবাইল ফোনের ব্যবহার ছড়িয়ে দিয়েছে এবং বাংলাদেশে ডিজিটালাইজেশনের নতুন যুগ নিয়ে এসেছে।  ০১৩ নম্বর সিরিজের ক্ষেত্রও আমাদের লক্ষ্য একই থাকবে। আমাদের উপর বিশ্বাস রাখার গ্রামীণফোনের ৭১ মিলিয়ন গ্রাহকদের ধন্যবাদ জানাই এবং যারা আমাদের উচ্চমানের নেটওয়ার্ক ও উদ্ভাববনী সেবা উপভোগ করতে ০১৩ সিরিজের সংযোগ নেবেন তাদেরকে জানাই স্বাগতম। সারাদেশকে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সংযোগের আওতায় এনে আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রকৃত সুবিধা সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এবং আমরা অন্য সবার আগেই সেটা করবো।’

০১৭ এর গ্রাহকরা যে নেটওয়ার্ক ও সেবা ব্যবহার করে আমাদের উপর বিশ্বাস রাখছেন, সেই একই সেবা উপভোগ করতে পারবেন ০১৩ সংযোগের গ্রাহকরা। আর ০১৩ নম্বরের নতুন সিম কার্ড পাওয়া যাবে সকল সিম বিক্রয় কেন্দ্রে, একই মূল্যে।

ছবির ক্যাপশন: গ্রামীণফোনের ডেপুটি সিইও এবং সিএমও ইয়াসির আজমান ০১৩ সিরিজের প্রথম কল করছেন টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের কাছে। এই সময় অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) মহাপরিচালক (ইঅ্যান্ডও) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মোস্তফা কামাল এবং চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন।

*

*