হুয়াওয়ের ইন্টারন্যাশনাল রেলওয়ে সামিটের আয়োজন

Huawei Holds the International Railway Summit to Accelerate Digital Railway Transformation with Leading New ICT (1)

ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অব রেলওয়েজ (ইউআইসি) ও হুয়াওয়ে টেকনোলজিসের সহযোগিতায় পঞ্চম আন্তর্জাতিক রেলওয়ে সামিট পৃষ্ঠপোষকতা করেছে আইআরআইটিএস। গত ১৫ থেকে ১৭ নভেম্বর কুয়ালালামপুরে সামিটটি অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে শীর্ষস্থানীয় বিভিন্ন শিল্পখাত, রেলওয়ে অপারেটর এবং বিশেষজ্ঞদের মধ্যে ২শ’ জন প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

সামিট চলাকালে হুয়াওয়ে, ডিজিটাল রেলওয়ে এবং ডিজিটাল রেল সল্যুশনের পাশাপাশি, রেলওয়ের অপারেশনাল যোগাযোগে নির্দিষ্ট এন্ড-টু-এন্ড আইসিটি সল্যুশন প্রদর্শন করে। জিয়াজুন ফেইহং, টপ জিংদা এবং সিঙ্গাপুরের এসটি ইলেকট্রনিকসের সাথে যৌথভাবে সাম্প্রতিক ক্লাউড কম্পিউটিং, বিগ ডাটা এবং ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি) প্র্রযুক্তির ওপর ভিত্তি করে হুয়াওয়ে রেলওয়ে আইওটি ও আরবান রেল ক্লাউড সল্যুশন প্রদর্শন করে। পাশাপাশি, প্রতিষ্ঠানটি রেলওয়ে খাতের ডিজিটাল রূপান্তরের প্রযুক্তিগত এসব সমাধান কিভাবে চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করবে তারও প্রদর্শন করে।

গত ১৫ নভেম্বর রেলওয়েখাতে বিশ্বের চল্লিশজন বিশেষজ্ঞের সুযোগ ঘটে কুয়ালালামপুরের বিখ্যাত লাইট র‌্যাপিড ট্রানজিট, এলআরটি অ্যামপ্যাং লাইনের অপারেশন, কন্ট্রোল সেন্টার ও ওসিসি দেখার। অ্যামপ্যাং লাইন এক্সটেনশন প্রকল্প হুয়াওয়ের আরবান রেল অপারেশনাল কমুনিকেশন সল্যুশনের সম্পূর্ণ স্যুটের সুবিধা ব্যবহার করে। এ প্রকল্পে হুয়াওয়ে সম্পূর্ণ এন্ড-টু-এন্ড কমুনিকেশন সল্যুশন দেয় এবং এর ডেলিভারি সেবা প্ল্যাটফর্ম ভিত্তিক সেবা দক্ষতা এবং পণ্যসহ নানা সমাধানের সুবিধা দিচ্ছে।

হুয়াওয়ের ডিজিটাল রেলওয়ে ট্রান্সফরমেশন সেশন গত ১৬ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। বক্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মালয়েশিয়ার ল্যান্ড পাবলিক ট্রান্সপোর্ট কমিশন (এস.পি.এ.ডি.), ইউআইসি, চায়না অ্যাাসোসিয়েশন অব মেট্রোজ এবং প্রাসারানা মালয়েশিয়া প্রতিনিধিরা। তারা ডিজিটাল প্রযুক্তি কিভাবে রেলওয়ে খাতের রূপান্তর ঘটাতে পারে তা নিয়ে আলোচনা করেন।

ট্রান্সপোর্ট সেক্টর অব হুয়াওয়ে এন্টারপ্রাইজ বিজনেজ গ্রুপের প্রেসিডেন্ট ইউয়ান জিলিন সেশনে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন। বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘হুয়াওয়ে অভিনব, পার্থক্য নির্ণয়কারী, অত্যাধুনিক আইসিটি হার্ডওয়্যার, বিশ্বাসযোগ্য নির্মাণে সফটওয়্যার ইনফ্রাস্ট্রাকচার এবং উন্মুক্ত ও নিরাপদ প্ল্যাটফর্ম প্রদান করছে। আমরা ডিজিটাল রূপান্তরের পথ সুগম করার জন্য রেলখাতের গ্রাহকদের এন্ড-টু-এন্ড সল্যুশন দিতে বিশ্বের রেলওয়ে খাতের বিভিন্ন অংশীদারদের সাথে কাজ করি।’

‘উন্মুক্ততা, সহযোগিতা এবং যৌথ লাভ’ – এর ব্যাপারে হুয়াওয়ে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। অংশীদারদের সাথে কাজের মাধ্যমে রেল পরিবহন শিল্পখাতের ডিজিটাল রূপান্তর ত্বরাণ্বিত করে গ্রাহকদের সহায়তা করতে অভিনবত্ব এবং এন্ড-টু-এন্ড সল্যুশন নিয়ে আসার ব্যাপারে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এখন পর্যন্ত রেলওয়ের জন্য হুয়াওয়ের আইসিটি সার্ভিস সল্যুশন বিশ্বের ১০টি শীর্ষস্থানীয় ব্র্যান্ডের ৫টি সহ ৫০টির বেশি ইন্টিগ্রেটর ও অপারেটরদের ১ লাখ ২০ হাজার কিলোমিটার রেললাইনে ব্যবহার করা হয়েছে।’

*

*