শুরু হয়েছে হুয়াওয়ে কানেক্ট ২০২০

huweai connect

গত ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে চীনের সাংহাইতে শুরু হয়েছে বৈশ্বিক আইসিটি শিল্পের জন্য হুয়াওয়ে আয়োজিত ফ্ল্যাগশিপ ইভেন্ট ‘হুয়াওয়ে কানেক্ট ২০২০’। এ প্ল্যাটফর্মেই হুয়াওয়ে এর অভিনব প্রযুক্তি ও কর্ম পরিকল্পনা উন্মোচন করে। নানা পরিসরে বিশ্বব্যাপী এ বছর ফাইভ-জি উন্মোচন শুরু হয়েছে; এর সাথে কানেক্টিভিটি, ক্লাউড, এআই কম্পিউটিং এবং খাত সংশ্লিষ্ট অ্যাপলিকেশনগুলো একত্রিত হয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) খাতের জন্য অভূতপূর্ব সুযোগ তৈরি করেছে। চলতি বছর হুয়াওয়ে কানেক্টের আলোকপাতের বিষয় হলো: পাঁচটি প্রযুক্তি ডোমেইনের সমন্বয়ে নতুন উপযোগ সৃষ্টি করা।

আগামীতে, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রবৃদ্ধিতে এবং দেশজ শিল্পের উন্নয়নের লক্ষ্যে কৌশলগত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে, স্থানীয় জনগোষ্ঠীর সুবিধার্থে এবং সুশাসনের সামগ্রিক উন্নয়নে হুয়াওয়ে তাদের অংশীদারদের সহযোগিতায় সংশ্লিষ্ট শিল্পে আইসিটি প্রযুক্তি প্রয়োগ ও পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট সমাধান প্রদান করবে।

অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ের রোটেটিং চেয়ারম্যান গুয়ো পিং ‘ক্রিয়েটিং নিউ ভ্যালু উইথ সিনার্জি অ্যাক্রোস ফাইভ টেক ডোমেইনস’ শীর্ষক মূল বক্তব্য প্রদান করেন। তিনি বলেন, ‘বিশ্বব্যাপী সরকার ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো যতো বেশি ডিজিটাল প্রযুক্তি ও বুদ্ধিমত্তার দিকে এগিয়ে যাবে, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতের প্রবৃদ্ধির সম্ভাবনা অবিশ্বাস্যভাবে বৃদ্ধি পাবে। আমরা আমাদের অংশীদারদের সাথে নতুন এ অধ্যায়ের সূচনা করতে চাই।’

অনুষ্ঠানে গুয়ো পিং এ খাত সংশ্লিষ্ট প্রায়োগিক জ্ঞানের সাথে আইসিটি প্রযুক্তির সমন্বয়ে স্মার্ট এন্টারপ্রাইজ, ক্যাম্পাস ও শহর নির্মাণ এবং তাদের গুরুত্বপূর্ণ ব্যবসায়িক সিস্টেমের সাথে সম্পর্কিত সরকার ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোকে পরিস্থিতির ওপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট সমাধান প্রদানের মাধ্যমে ভ্যালু সৃষ্টিতে হুয়াওয়ের সর্বোত্তম অনুশীলনীগুলো তুলে ধরেন। পরবর্তী ধাপে, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রবৃদ্ধি বাড়াতে এবং দেশজ শিল্পের উন্নয়নের লক্ষ্যে কৌশলগত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে, স্থানীয় জনগোষ্ঠীর সুবিধার্থে এবং সুশাসনের সামগ্রিক উন্নয়নে হুয়াওয়ে তাদের অংশীদারদের সহযোগিতায় সংশ্লিষ্ট শিল্পে আইসিটি প্রযুক্তি প্রয়োগে কাজ করবে।

নেটওয়ার্ক, কম্পিউটিং, ক্লাউড সার্ভিস এবং এআই এর মতো প্রধান ব্যবসায়িক ডোমেইনগুলোতে হুয়াওয়ে তাদের বিনিয়োগের ধারা চলমান রাখবে। হুয়াওয়ে বিশ্বাস করে এ পাঁচটি প্রযুক্তি ডোমেইনের সমন্বয় শুধুমাত্র হুয়াওয়ের জন্য সুযোগ সৃষ্টি করবে না বরং এটি সম্পূর্ণভাবে এ খাতের জন্যই সুযোগে তৈরি করবে। অংশীদারদের সাথে একসাথে প্রবৃদ্ধিতে এবং নতুন ভ্যালু চেইনে থেকে সুবিধা পেতে অংশীদারদের সহায়তা করতে আশাবাদী হুয়াওয়ে।

হুয়াওয়ের পরিচালনা পর্ষদ সদস্য এবং হুয়াওয়ের এন্টারপ্রাইজ বিজি -এর প্রেসিডেন্ট পেং ঝংইয়াং ডিজিটাল রূপান্তরে বিষয় একটি নতুন কাঠামো বিকাশ নিয়ে মূল বক্তব্য প্রদান করেন। নতুন এ কাঠামোতে, ক্রেতাদের চাহিদানুযায়ী উদ্ভাবনের মাধ্যমে তাদের প্রয়োজন ও আকাঙ্ক্ষা পূরণে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে হুয়াওয়ে। পাঁচটি প্রযুক্তি ডোমেইনের সমন্বিত সুবিধায় হুয়াওয়ে একটি শক্তিশালী ডিজিটাল ইকোসিস্টেম তৈরিতে সচেষ্ট থাকবে, যা সংশ্লিষ্ট শিল্পখাতে নতুন ভ্যালু তৈরি করবে।

অর্থ, সরকার, শিক্ষা, এন্টারপ্রাইজ, বিনোদন ও ব্যবসায়িক খাতে ডিজিটাল উদ্ভাবনের ক্ষমতায়নে সম্পূর্ণভাবে উন্মুক্ত হুয়াওয়ে মোবাইল সার্ভিস (এইচএমএস) কীভাব সহায়তা করেছে এবং ক্রেতাদের বৈচিত্র্যপূর্ণ চাহিদা মেটাতে কীভাবে এআই লাইফ সেবা প্রদান করছে তা নিয়ে আলোচনা করেন হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপের কনজ্যুমার ক্লাউড সার্ভিসের প্রেসিডেন্ট ঝ্যাং পিংআন।

বক্তব্যের শেষে গুয়ো পিং হুয়াওয়ের সকল অংশীদারদের উদ্দেশে বলেন, ‘হুয়াওয়ে একটি শক্তিশালী প্ল্যাটফর্ম তৈরি করবে এবং আমাদের অংশীদারেরাই একে ত্বরাণ্বিত করবে এবং সুবিধা গ্রহণ করবে। একসাথে আমরা সফলতা অর্জন করবো এবং আমাদের ক্রেতাদের জন্য ভ্যালু সৃষ্টিতে সচেষ্ট থাকবো।’

বৈশ্বিক আইসিটি শিল্পের জন্য হুয়াওয়ে আয়োজিত বার্ষিক ফ্ল্যাগশিপ ইভেন্ট ‘হুয়াওয়ে কানেক্ট ২০২০’। সম্মেলনটি ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাংহাইতে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন: https://www.huawei.com/en/events/huaweiconnect2020/

*

*