রিয়েলমির নতুন সার্ভিস সেন্টার চালূ

realmee

তরুণ প্রজন্মের পছন্দের স্মার্টফোন ব্র্যান্ড রিয়েলমি উন্নত গ্রাহকসেবা নিশ্চিত করতে মাত্র ১ মাসের ব্যবধানে ময়মনসিংহ, যশোর ও খুলনায় ৩ টি নতুন সার্ভিস সেন্টার চালু করেছে।

রিয়েলমি’র কাছে ব্যবহারকারীদের সন্তুষ্টি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। তাই ব্যবহারকারীদের চাহিদা পূরণে দেশজুড়ে সার্ভিস সেন্টার চালুর কাজ করে চলেছে রিয়েলমি। নতুন এ শাখাগুলো-সহ সারাদেশে এখন রিয়েলমি’র ২২ টি সার্ভিস সেন্টার ও ৩০০ টিরও বেশি ব্র্যান্ড শপ রয়েছে।

এখন ময়মনসিংহ, যশোর ও খুলনার স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা তাদের রিয়েলমি স্মার্টফোন সম্পর্কিত যেকোনো সমস্যা সমাধান করতে পারবেন নিমিষেই। ময়মনসিংহের সার্ভিস সেন্টারটি ০১, সি কে ঘোষ রোডে (প্রেস ক্লাবের বিপরীতে) অবস্থিত, যশোরের সার্ভিস সেন্টারটি লেভেল-০৩, অ্যাকসেনচার গাজী পূর্বাচল টাওয়ার, আরএন রোডে এবং খুলনা সার্ভিস সেন্টারটি লেভেল ০২, মধুমতি ব্যাংক বিল্ডিং, ইসলাম ট্রেডার্স, শেখ পাড়া, ১৮ কেডিএ এভিনিউ, তাতুল তোলা মোড়ে অবস্থিত। শুক্রবার ছাড়া সপ্তাহের বাকী দিনগুলোতে রিয়েলমি’র ক্রেতারা ময়মনসিংহ সার্ভিস সেন্টার থেকে সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত (দুপুর ১ টা থেকে ২টা পর্যন্ত দুপুরের খাবারের বিরতি), খুলনা সার্ভিস সেন্টার থেকে সকাল সাড়ে ৯ টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত (দুপুর ১ টা থেকে ২টা পর্যন্ত দুপুরের খাবারের বিরতি) এবং যশোর সার্ভিস সেন্টার থেকে সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত (দুপুর ১ টা থেকে ২টা পর্যন্ত দুপুরের খাবারের বিরতি) যেকোনো সেবা নিতে পারবেন।

মাত্র ১ মাসে ৩টি সার্ভিস সেন্টার চালুর পদক্ষেপ, ব্যবহারকারীদের প্রতি রিয়েলমি’র উন্নত সেবা প্রদানের অঙ্গীকারের প্রতিফলন।

রিয়েলমি বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিম শাও বলেন, ‘রিয়েলমি’র কাছে গ্রাহকের প্রয়োজন সবসময় অগ্রাধিকার পায়। এজন্যই আমরা তাদের স্মার্টফোন সম্পর্কিত প্রয়োজনীয়তা পূরণে সকল ধরণের পদক্ষেপ গ্রহণ করে থাকি। আমাদের নতুন সার্ভিস সেন্টারগুলো ক্রেতাদের উন্নত সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে নেওয়া উদ্যোগগুলোর ধারাবাহিকতা তুলে ধরেছে।’

ভবিষ্যতে আরও সার্ভিস সেন্টার চালু করার মাধ্যমে রাজধানীর বাইরের ক্রেতাদের কাছে আরও উন্নত সেবা নিয়ে হাজির হবে রিয়েলমি। এছাড়াও, রিয়েলমি আগামী ৩ বছরের মধ্যে তরুণ ব্যবহারকারীদের কাছে ১০ কোটি ৫জি ফোন সরবরাহের লক্ষ্যে, ৫জি পণ্যের এক বিস্তৃত পোর্টফলিও তৈরিতে কাজ করছে। এর পাশাপাশি, প্রতিষ্ঠানটি তাদের উন্নত ‘১+৫+টি’ কৌশলের সাথে এআইওটি ২.০ বিকাশের পর্যায়ে প্রবেশ করেছে। এর ফলে সাশ্রয়ী মূল্যের ৫জি ফোন ছাড়াও রিয়েলমি তরুণ প্রজন্মের ক্রেতাদের জন্য আরও অনেক এআইওটি পণ্য বাজারে নিয়ে আসবে। ক্যানালিসের তথ্য মতে, ২০২১ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে বাংলাদেশের শীর্ষ স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হয়েছে রিয়েলমি।

*

*