রবি ক্যাশের মাধ্যমে ট্রেনের অগ্রীম টিকিট

robi cash

নিজস্ব ডিজিটাল পেমেন্ট সল্যুশন রবি ক্যাশ’র মাধ্যমে ট্রেনের অগ্রীম টিকিট কেনার সেবা প্রদান করছে দেশের শীর্ষ ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী কোম্পানি রবি। এর ফলে ঈদের ছুটিতে ব্যবহার-বান্ধব উপায়ে ও স্বাচ্ছন্দে ট্রেনের টিকেট কিনতে পারবেন গ্রাহকরা।

সেবাটি পেতে রবি গ্রাহকদের প্রথমে মোবাইল ফোন থেকে *১৩১# লিখে ডায়াল করে টিকেট বুক করতে হবে। এরপর একটি সহজ প্রক্রিয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদেরকে যাত্রার তারিখ, যাত্রা শুরুর স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, ট্রেনের নাম, শ্রেণী ও কাঙ্খিত সিট সম্পর্কিত তথ্য সরবরাহ করতে হবে। টিকেট বুকিং প্রক্রিয়া শেষে বুকিং কোডসহ গ্রাহক সাথে সাথে একটি এসএমএস পাবেন যাতে টিকেটটি কেনার জন্য টাকার পরিমানও উল্লেখ থাকবে। এসএসএসটি গ্রহণ করার ৩০ মিনিটের মধ্যে দেশজুড়ে ররি’র ৩০ হাজার ক্যাশ পয়েন্টের যে কোনটিতে টিকেটের মূল্য পরিশোধ করা যাবে। এছাড়া গ্রাহকরা পুরো প্রক্রিয়াটি এজেন্ট পয়েন্টগুলোর সহায়তায় করতে পারবেন।

মূল্য পরিশোধ করার পর গ্রাহক এসএমএসে একটি ই-টিকেট নম্বর পাবেন। এই ই-টিকেটটি রেল স্টেশনের কম্পিউটার কাউন্টারে দেখিয়ে গ্রাহকদেরকে প্রিন্ট টিকেট সংগ্রহ করতে হবে। ট্রেন ছাড়ার অন্তত ১ ঘণ্টা আগে টিকেটটি সংগ্রহ করতে অনুরোধ করা হয়েছে। দেশের ৫২টি রেলস্টেশনে এই ই-টিকেট পাওয়া যাবে।

প্রতি সিটের টিকেটের জন্য ২০ টাকা সার্ভিস চার্জ প্রদান করতে হবে। বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের নিয়ম অনুযায়ী, টিকেটটি হস্তান্তযোগ্য নয় এবং একটি নাম্বার থেকে মাসে সর্বোচ্চ চারবার লেনদেন করা যাবে। মোবাইল-ভিত্তিক ট্রেন টিকেটিং সলিউশনটির মাধ্যমে সপ্তাহের সাত দিনই সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত টিকেট কেনা যাবে। যাত্রার সর্বোচ্চ ১০দিন আগে থেকে টিকেট কেনার সুযোগ পাবেন গ্রাহকগণ।

বাংলাদেশ রেলওয়ের অনুমোদিত টিকেট বিক্রেতা সিএনএস লিমিটেডের পার্টনার হিসেবে রবি এ সেবা প্রদান করছে। সহজে ট্রেনের টিকিট পাওয়ার জন্য ২০১৬ সালের জানুয়ারি থেকে মোবাইলভিত্তিক ট্রেন টিকেটিং সল্যুশন এনেছে রবি।

*

*