মডার্ন ওয়ার্কপ্লেস নিয়ে ভার্চুয়াল সম্মেলন

modern workplace

দ্য ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড অ্যাকাউনট্যান্টস বাংলাদেশের (আইসিএবি) আয়োজনে সম্প্রতি ‌মডার্ন ওয়ার্কপ্লেস নিয়ে ভার্চুয়াল সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী  মোস্তাফা জাব্বার। তিনি বলেন, “আমি বিশ্বাস করি কোভিড-১৯ এ অনেক কিছুই পরিবর্তন হবে, ব্যবসায়িক কৌশল পরিবর্তন করতে হবে এবং সেখানে ডিজিটাইজেশন হবে মূল চালিকাশক্তি।” প্রচলিত ব্যবসা পরিবর্তিত হয়ে মেধাভিত্তিক শিল্প গড়ে উঠবে, আর এসব কিছুর মূল চালিকাশক্তি হবে ডিজিটাইজেশন। সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্মার্ট টেকনোলোজিস বিডি লিমিটেডের সফটওয়্যার বিজনেস এর প্রধান মো. মিরসাদ হোসাইন। অনলাইনে দেশের প্রায় সাত শতাধিক চার্টার্ড আকাউেন্টেন্ট পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। ‘মডার্ন ওয়ার্কপ্লেস’ সম্পর্কে সম্যক ধারণা দিয়ে মো. মিরসাদ হোসাইন বলেন, মডার্ন ওয়ার্ক বিষয়টা হলো নির্দিষ্ট কাজের প্রতি গুরুত্ব দিয়ে সক্ষমতা এবং সঠিক টুল ব্যাবহারের মাধ্যমে কাজের গতিশীলতা বাড়িয়ে দেয়া। আধুনিক কর্মক্ষেত্র এমন একটি ধারণা যেখানে উদ্দক্তাগন অনুপ্রেরনার মাধমে কর্মীদের প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বাড়িয়ে গ্রাহক সেবার মান বৃদ্ধি ও গ্রাহকদের জড়িত করা, প্রতিদিনের ক্রিয়াকলাপ অনুকূল করা এবং সংস্থার পণ্য, পরিষেবা এবং ব্যবসায়ের মডেলগুলির প্রকৃতি পরিবর্তন করে প্রতিষ্ঠানের বিস্তৃত রূপান্তরকে চালিত করতে পারেন। মডার্ন ওয়ার্কপ্লেসে রাইট টুল পছন্দ করাটা গুরুত্বপূর্ণ। আপনি আপনার সহায়ক যে টুলগুলো ব্যবহার করবেন তার সঠিক ব্যবহার করতে পারলে কাজ সহজ এবং গতিময় হবে।একজন বিজয়ী এবং বিজীত একসঙ্গেই কাজ শুরু করেন। কিন্তু বিজয়ী লক্ষ্য ঠিক করে সেখানে পৌঁছাতে সাথে সাথেই কাজে যুক্ত হয় কিন্তু বিজীত সেই কাজটি করেন না বলেই প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে যান। দেড় ঘণ্টার সেশনে তিনি ‘ইন্ট্রোডাকশন টু মডার্ন ওয়ার্কপ্লেস’ সম্পর্কে দর্শনার্থীদের একটি স্বচ্ছ ধারণা প্রদান করেন।

*

*