ভিভোর প্রাধান্যর তালিকায় প্রিমিয়াম এক্স সিরিজ

x70 pro

স্মার্টফোন ইন্ডাস্ট্রিতে প্রিমিয়াম এক্স সিরিজকে সবসময়ই প্রাধান্য দিয়ে এসেছে বহুজাতিক স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভিভো। এ কারণে সবসময় প্রতিষ্ঠানটি এই সিরিজের ক্যামেরাসহ অন্যান্য ফিচারে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার নিশ্চিত করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় এবার বাজারে এক্স সিরিজের নতুন স্মার্টফোন এনেছে ভিভো; নাম ভিভো এক্স ৭০প্রো ৫জি।

অপটিক্স ও অপটোইলেকট্রনিক্সের জগতে সেরা জার্মান প্রতিষ্ঠান কার্ল জেইসের সঙ্গে সমন্বয় করে আনা হয়েছে ভিভো এক্স৭০প্রো। এক্স৭০প্রো স্মার্টফোনটির ক্যামেরা প্রযুক্তি দিয়ে স্মার্টফোন ফটোগ্রাফির জগতে আরো শীর্ষে পৌঁছেছে প্রতিষ্ঠানটি। এক ক্লিকেই সেরা ছবি তোলার অভিজ্ঞতা দিতে এবং এক্সক্লুসিভ মোবাইল ফটোগ্রাফিকে সবার হাতের নাগালে আনতেই বাজারে আনা হয়েছে ডিভাইসটি। গত ১৬ অক্টোবর থেকে স্মার্টফোনটি বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। এর মূল্য ধরা হয়েছে ৭২,৯৯০ টাকা।

ফটোগ্রাফিতে সবচেয়ে জরুরি ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টি হলো আলো। জেইস টি* কোটিং হলো ছবি তোলার সময় যা আলোর প্রতিফলন হ্রাসে কাজ করে আলোর প্রতিফলনকে স্বচ্ছ কওে লেন্সের মাধ্যমে ছবির ঘোস্টিং এবং নয়েজ কমিয়ে আনে।

একই স্মার্টফোনে আলট্রা সেন্সিং সেন্সর এবং গিম্বল ক্যামেরা সিস্টেম একত্রে রাখা এর আগে অসম্ভব ছিলো। কিন্তু ভিভো’র রিসার্চ এবং ডেভেলপমেন্ট টিম এটিকে সম্ভব করেছে। ভিভো এক্স৭০প্রো’তে একইসঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে আলট্রা সেন্সিং গিম্বল ক্যামেরা। এই প্রযুক্তির কারণে ভিভো এক্স৭০প্রো অনেক বেশি স্থির ও স¦চ্ছ ছবি তুলবে। চলমান সময়ে ছবি তুলতে গিয়ে ছবির ব্লার হওয়া রোধ করবে। একইসঙ্গে অন্ধকার পরিবেশে দারুণ ছবি তুলতে সহায়তা করবে এই দুই প্রযুক্তি। জেইসের সমন্বয়ে পোর্ট্রইেট এর ক্ষেত্রে ভিভো এক্স৭০প্রো’তে চারটি যুগান্তকারী উদ্ভাবন এনেছে ভিভো, এছাড়াও এতে রয়েছে সুপার নাইট ক্যামেরা যা; ক্যামেরায় রিয়েল টাইম এক্সট্রিম নাইট ভিশন ধারণ করবে। অনেক সময়ই কোনো বিষয়বস্তুর যেই চেহারা, যেই রং আমরা চোখে দেখি, ঠিক তাই ক্যামেরায় ধারণ করা সম্ভব হয় না। কিন্তু ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি’ তে সম্ভব হবে।

এছাড়াও স্মার্টফোনটিতে রয়েছে জেইস স্টাইল পোর্ট্রেটস প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তির আওতায় স্মার্টফোনটিতে যুক্ত করা হয়েছে জেইসের চারটি পোর্ট্রইেট ক্যামেরা লেন্সের আদলে – বায়োটার, ডিসটাগন, প্ল্যানার, এবং সোনার। এই চারটি লেন্সের সমন্বয়ে পোর্ট্রইেট ফটোগ্রাফি করতে পারবেন গ্রাহকরা। এছাড়াও পরিষ্কার ও স্বচ্ছ ভিডিও করার জন্য ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি স্মার্টফোনে রয়েছে ভিস ৫-এক্সিস আল্ট্রা স্ট্যাবল ভিডিও

মোড। ৬০ এক্স হাইপার জুম এবং ৫ এক্স অপটিক্যাল পেরিস্কোপ ক্যামেরা সম্বলিত ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি যেকোনো ছবিকে উজ্জ্বল করে তোলে।

এত এত প্রযুক্তি থাকা সত্ত্বেও ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি মাত্র ৭.৯৯ মিলিমিটারের স্লিম একটি স্মার্টফোন। এর স্লিমনেসের জন্য স্মার্টফোনটি একটি প্রিমিয়াম লুকও পেয়েছে। ফ্রন্ট এবং রিয়ার ক্যামেরায় রয়েছে ডুয়েল কার্ভড ডিজাইন। এর থ্রি-ডি কার্ভড ডিসপ্লেটি রিয়ার প্যানেলের মাঝের ফ্রেমে এসে যুক্ত হয়েছে; যা ব্যবহারকারীদেরকে প্রিমিয়াম স্মার্টফোন ব্যবহারের অনুভূতি দিবে। কসমিক ব্ল্যাক এবং অরোরা ডাউন; এই দুই রঙে বাংলাদেশে পাওয়া যাচ্ছে ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি ।

ভিভো এক্স৭০প্রো ৫জি স্মার্টফোনে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি-১২০০ ভিভো প্ল্যাটফর্মের চীপ ব্যবহার করা হয়েছে। এর সঙ্গে ফানটাচ ওএস ১২ মিলে ভিভো এক্স৭০প্রো স্মার্টফোনকে একটি অল-রাউন্ডার স্মার্টফোনে পরিণত করেছে। সূক্ষ্মতম কোনো ত্রুটিও না রেখে, সেরা পারফরম্যান্স দেয়ার জন্য ভিভো এক্স৭০প্রো গ্লোবাল স্মার্টফোন বাজারেও ইতিমধ্যে সাড়া ফেলেছে।

*

*