Monday, April 22, 2024
spot_img
Homeগ্যাজেটসনতুন পন্যবেশি বিক্রির রেকর্ড করেছে অপো রেনো এইট টি

বেশি বিক্রির রেকর্ড করেছে অপো রেনো এইট টি

রেনো সিরিজের নতুন সংযোজন পোর্ট্রেট এক্সপার্ট অপো রেনো এইট টি বাজারে এসেছে। দেশব্যাপী অপো’র যেকোনো আউটলেট থেকে ফোনটি কেনা যাচ্ছে। প্রি-অর্ডার করা গ্রাহকরা এখন থেকে তাদের পছন্দের ফোনটি সংগ্রহ করতে পারবেন। দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন এবং চমৎকার ক্যামেরা সেটআপের জন্য ফোনটি স্মার্টফোন ও প্রযুক্তি প্রেমীদের মাঝে প্রশংসিত হচ্ছে। শুরু হয়েছে এই ফোনের ফার্স্ট সেল। একই সিরিজের আগের ফোনের তুলনায় ৪০০ শতাংশ বেশি বিক্রির রেকর্ড করেছে অপো রেনো এইট টি।

হার্ডওয়্যার আপডেটের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের জন্য অসাধারণ পোর্ট্রেট ফটোগ্রাফি অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে এই ফোনে যুক্ত করা হয়েছে নতুন আল্ট্রা-ক্লিয়ার ইমেজিং সিস্টেম এবং বিভিন্ন পোর্ট্রেট ইমেজিং ফিচার। অপো রেনো এইট টি’তে রয়েছে ১০০ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেল ডেপথ ক্যামেরা, ৪০x মাইক্রোলেন্স, ৩২ মেগাপিক্সেল (f/২.৪) ফ্রন্ট ক্যামেরা সহ অসাধারণ সব স্টাইলিশ ও নান্দনিক ফিচার।

১০০ মেগাপিক্সেল পোর্ট্রেট ক্যামেরার সাথে আছে এডিটিং ও ক্রপিং ফিচার, যার সাহায্যে খুব সহজেই ব্যবহারকারীরা সুন্দর ছবি তুলতে পারবেন। ভালো ডিটেইলস সহ ওয়াইড প্যানোরামার ছবি তুলতে এই ফোনে আছে সেকেন্ডারি ক্রপিং সুবিধা। কম আলোতে তোলা আবছা ছবি আরও সুন্দরভাবে ফুটিয়ে তুলতে এই ফোনে রয়েছে পোর্ট্রেট সুপার রেজোলিউশনের মতো বিভিন্ন এআই ফিচার। ফ্ল্যাশ স্ন্যাপশট কাজে লাগিয়ে চলন্ত (নড়াচড়া করছে এমন পরিস্থিতিতে) অবস্থায়ও পরিষ্কার ছবি তোলা যাবে। অনেকগুলো আলট্রা-শর্ট এক্সপোজার ফটোর মধ্যে থেকে ব্যবহারকারী নিজের পছন্দের ছবিটি নিতে পারবেন। অপো রেনো এইট টি ফোনে আছে সেলফি এইচডিআর প্রযুক্তি, যার সাহায্যে তোলা প্রতিটি ছবিতে থাকবে সঠিক এক্সপোজার ও ডিটেইলস। যার কারণে এই সেলফি ক্যামেরা দিয়ে তোলা ছবি খুব ন্যাচারাল মনে হয়। এছাড়া, সব পোর্ট্রেট ফটো ও ভিডিও আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে এই ফোনে আছে এআই পোর্ট্রেট রিটাচিং, যা ৩৯৩ ধরনের ফেসিয়াল ফিচার পয়েন্ট চিনতে পারে। এই ফোনের বোকেহ ফ্লেয়ার পোর্ট্রেইট ব্যবহার করে তোলা ছবি দেখতে ঠিক ডিএসএলআর ক্যামেরার মতো। ব্যবহারকারীরা মাইক্রোলেন্সের ৪০ গুণ ম্যাগনিফিকেশনের মাধ্যমে অদেখা সৌন্দর্য ক্যামেরাবন্দী করতে পারবেন।

অপো রেনো এইট টি ফোনের সানসেট অরেঞ্জ রঙের ডিজাইনে রয়েছে ফাইবারগ্লাস-লেদার স্টিচ ডিজাইন। ফোনের চারপাশে প্লাস্টিক এজিং অপসারনের জন্য রেনো এইট টি তৈরি করার সময় অবলম্বন করা হয়েছে নতুন এক কৌশল, যার ফলে ব্যবহারকারীরা পাবেন প্রিমিয়াম অভিজ্ঞতা এবং লেদারের মতো ব্যাটারি কভারের তুলনায় অনেক হালকা ও পাতলা কভার ব্যবহারের অনুভূতি। স্টারি ব্ল্যাক রঙের ডিজাইনে আছে অপো গ্লো টেকনিক, যার সাহায্যে ফোনটি ব্যবহারের সময় সিল্কের মতো মসৃণ অনুভূতি পাওয়া যাবে। এছাড়া, এই ফোনে আছে কাস্টমাইজেবল অরবিট লাইট ডিজাইন যা পাঁচটি ভিন্ন নটিফিকেশন সেটিংস সমর্থন করে এবং ব্যবহারকারীরা নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী বিভিন্ন কালার অপশন পার্সোনালাইজ করতে পারবেন। এই ফোনের আল্ট্রা-স্লিম বডি ডিজাইন সবার জন্য উপযুক্ত। আপগ্রেডেড কালারওএস ১৩, ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেট, ৪৮ মাসের ফ্লুয়েন্সি প্রটেকশন ও ৩৩ ওয়াট সুপারভুক সহ ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার (এমএএইচ) ব্যাটারি ব্যবহারকারীদের জন্য নিশ্চিত করবে নিরবচ্ছিন্ন স্মার্টফোন অভিজ্ঞতা।

এতোসব দুর্দান্ত ফিচারের কারণে অপো রেনো এইট টি ফোনটি ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। সানসেট অরেঞ্জ ও স্টারি ব্ল্যাক এই দু’টি রঙে পাওয়া যাচ্ছে এই ফোন, যার মূল্য মাত্র ৩২,৯৯০ টাকা। আর দেরি না করে এখুনি কিনে ফেলুন রেনো এইট টি।

spot_img
আরও পড়ুন
- Advertisment -spot_img

সর্বাাধিক পঠিত

spot_img