বিশ্বের শীর্ষ দশ “টিডব্লিউএস ব্র্যান্ড”-এ স্থান করে নিয়েছে রিয়েলমি

realme electronic gadget

তরুণদের পছন্দের ব্র্যান্ড রিয়েলমি প্রতিনিয়ত নতুন মাইলফলক অর্জন করছে। কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চের তথ্য মতে, দ্রুততম বর্ধনশীল এই ব্র্যান্ডটি গত বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে রপ্তানির ক্ষেত্রে ‘টপ ১০ ট্রু ওয়্যারলেস স্টেরিও হেয়ারেবল-টিডব্লিউএস ব্র্যান্ড’-এ স্থান করে নিয়েছে।

কাউন্টারপয়েন্ট এর মতে, রিয়েলমি চলতি বছরেও রপ্তানির ক্ষেত্রে তাদের পূর্ববর্তী বছরের সাফল্য ধরে রাখবে। পাশাপাশি, রিয়েলমি টিডব্লিউএস খাতে বৈশ্বিক বাজারের ২ শতাংশ দখল করে নিয়েছে।

এছাড়াও, জনপ্রিয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে রিয়েলমি অন্যান্য ক্ষেত্রেও দক্ষতার পরিচয় দিচ্ছে। গত বছর প্রতিষ্ঠানটি ১৭টি ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড, ১৫৯টি প্রোডাক্ট অ্যাওয়ার্ড এবং ৫টি শীর্ষ স্থানীয় ডিজাইন অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেছে। এর মধ্যে রয়েছে তিনটি ভিন্নধর্মী পণ্যের জন্য গুড ডিজাইন অ্যাওয়ার্ড ২০২০ এবং রিয়েলমি এক্স২ প্রো এর জন্য রেড ডট ডিজাইন অ্যাওয়ার্ড এবং গোল্ডেন পিন অ্যাওয়ার্ড।

তরুণদের পছন্দের এই ব্র্যান্ডটি গত বছর আরো অনেকগুলো স্বীকৃতি অর্জন করেছে। বাজারের অবস্থানের দিক থেকে রিয়েলমি ১২টি দেশে শীর্ষ পাঁচে স্থান করে নিয়েছে এবং বৈশ্বিকভাবে ৬১টি দেশে তাদের বাজার সম্প্রসারণ করেছে। এর মধ্যে রিয়েলমি বাংলাদেশে কাউন্টারপয়েন্টের সমীক্ষা মতে, শীর্ষ চার মোবাইল ব্র্যান্ডের ১-টিতে পরিণত হয়েছে।

কাউন্টার পয়েন্ট রিসার্চের মতে, আনুষ্ঠানিকভাবে রিয়েলমি সবচেয়ে কম সময়ের ভেতর ৫ কোটি স্মার্টফোন রপ্তানির মাইলফলক অর্জন করেছে। বিভিন্ন বাজারে রিয়েলমি তুলনামূলক কম মূল্য পরিসীমায় ১ম ব্র্যান্ড হিসেবে ফাইভজি প্রযুক্তি চালু করেছে। স্বনামধন্য মোবাইল অথরিটি জিএসএম অ্যারেনা গত বছর প্রথমবারের মতো রিয়েলমি’র মিডরেঞ্জ ফোনগুলোকে অল-রাউন্ডার মোবাইল ফোন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে।

তরুণদের পছন্দের এই ব্র্যান্ডটি ‘স্মার্টফোন+আইওটি’ কৌশলের ওপর গুরুত্ব দিয়ে কাজ করছে। তরুণদের ভিন্নধর্মী জীবনধারার বিষয়টিকে নিশ্চিত করতে চলতি বছর ব্র্যান্ডটি তাদের নিজস্ব এআইওটি প্ল্যাটফর্ম টেকলাইফ চালু করবে। ‘ডেয়ার টু লিপ’ প্রতিপাদ্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে রিয়েলমি গত বছররের সাফল্যকে ধরে রেখে নতুন বছরে ব্যবহারকারীদের জন্য আরো নতুন উদ্ভাবনী প্রযুক্তি নিয়ে আসবে।

*

*