‘বিজয় ইতিহাস অ্যাপ’ চালু করল রবি

NAZ05897

উদ্ভাবনী অ্যাপের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পেছনের গৌরবময় ইতিহাসকে জাতির সামনে তুলে ধরল দেশের অন্যতম ডিজিটাল ব্র্যান্ড রবি। ২ থেকে ৫শ’ টাকার যে কোন নোট স্ক্যান করে যে কেউ জানতে পারবেন স্বাধীনতা অর্জনের পেছনে থাকা আমাদের গৌরবময় ইতিহাসের প্রতিটি অধ্যায়। গতকাল রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর, এমপি উদ্ভাবনী এ ডিজিটাল অ্যাপটি উদ্বোধন করেন। এসময় রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন আহমেদসহ রবি’র ম্যানেজমেন্ট টিম উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রখ্যাত শিল্পী মুস্তফা মনোয়ার, শের-ই-বাংলা ফাউন্ডেশন’র চেয়ারম্যান এবং শের-ই-বাংলা এ কে ফলজুল হকের নাতি এ কে ফায়াজুল হক ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন ড. আবু মো. দেলোয়ার হোসেন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া ১৫ জন নারী মুক্তিযোদ্ধাও অংশ নেন বিজয় ইতিহাস অ্যাপ’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। স্বাধীনতা সংগ্রামে তাদের অনন্য অবদানের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে আগত দর্শকরা সবাই একসাথে দাঁড়িয়ে তাদের অভিবাদন জানান। রবি’র ব্র্যান্ড অ্যান্ড মার্কেট কমিউনিকেশনস’র ভাইস প্রেসিডেন্ট এ প্রকল্পটির পেছনের গল্প তুলে ধরেন। পাশাপাশি বিজয় ইতিহাস অ্যাপ’র প্রযুক্তিগত দিকগুলোও ব্যাখা করেন তিনি।

সাভারে স্থাপিত জাতীয় স্মৃতিসৌধের প্রতিটি স্তম্ভের অর্থকেই ফুটিয়ে তোলা হয়েছে এই অ্যাপটির মাধ্যমে। প্রতিটি টাকাতেই জাতীয় স্মৃতিসৌধের ছবি আছে, দেশের সর্বত্রই টাকার উপস্থিতি আছে এবং প্রত্যেকের কাছেই এর সহজলভ্যতা আছে- এ দিকটি মাথায় রেখেই অ্যাপটির পরিকল্পনা করা হয়েছে।  এর ফলে অ্যাপটির মাধ্যমে দেশের প্রতিটি নাগরিকের কাছে কার্যকরভাবে আমাদের গৌরবময় ইতিহাস তুলে ধরা সহজ হবে বলে প্রত্যাশা রবি’র।

মুস্তফা মনোয়ার বলেন, নতুন প্রজন্ম যথেষ্ট প্রযুক্তি-বান্ধব, তাদের তাদের ডিজিটাল ডিভাইসে অনেক কিছু ডাউনলোড করেন। এই অ্যাপ তাদের কাছে আমাদের ইতিহাস জানাতে এক নুতন দিগন্তের উন্মোচন করল।

বিজয় ইতিহাস অ্যাপের মাধ্যমে ২, ৫, ১০, ২০, ৫০, ১০০ ও ৫০০ টাকার নোট স্ক্যান করলে যথাক্রমে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলন, ১৯৫৪ সালের যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ১৯৫৮ সালের সামরিক শাসন জারি, ১৯৬২ সালের শিক্ষা আন্দোলন, ১৯৬৬ সালের ছয় দফা আন্দোলন, ১৯৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থান এবং ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের অডিও-ভিজ্যুয়াল ইতিহাস জানা যাবে।

অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি বিষয়ক  মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেন, এ ধরণের একটি উদ্ভাবনী অ্যাপ চালু করায় আমি রবি’কে ধন্যবাদ জানাই। তরুণ প্রজন্ম প্রযুক্তিতে অভ্যস্ত। সে প্রেক্ষিতে তাদের কাছে গৌরবময় ইতিহাস তুলে ধরতে অ্যাপ একটি কার্যকর মাধ্যম হতে পারে। রবি’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড সিইও মাহতাব উদ্দিন বলেন, “দেশের গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসকে উদযাপন করতে পেরে রবি সবসময়ই গর্বিত। আপনারা খেয়াল করে দেখবেন আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপে এমন আবহ থাকে যা আমাদের বাংলাদেশী হিসেবে গর্বিত করে, বিজয় অ্যাপ’র উদ্বোধন সেই ধারাবাহিকতারই অংশ। উদ্ভাবনী এই অ্যাপের মাধ্যমে দেশের সবার কাছে স্বাধীনতা অর্জনের গৌরবময় ইতিহাস তুলে ধরতে পেরে আমরা আনন্দিত। স্বাধীন দেশের প্রত্যেক নাগরিককে তার দেশের স্বাধীনতা অর্জনের ইতিহাস জানা উচিত। এ ব্যাপারে পরিপূর্ণ জ্ঞান না থাকার ফলে জাতি যে কোন সময় বিপথগামী হতে পারে। বিজয় ইতিহাস অ্যাপ উদ্বোধনের মাধ্যমে রবি সে চেতনাকেই দৃঢ় করার চেষ্টা করছে।

*

*