বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সাথে কাজ করবে ফুজিৎসু

Hightech Park

গতকাল সোমবার (১৭ জুন, ২০১৯) হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে বাংলাদেশের আইটি সেবা ও পণ্যসমূহ বিশ্ববাজারে সম্প্রসারণ, আইটি সেক্টরে দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টি, জাপান ও বাংলাদেশি আইটি কোম্পানিসমূহের মধ্যে সহযোগিতা বৃদ্ধিসহ আরো কিছু ইস্যুতে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ ও ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউট একযোগে কাজ করবে উপলক্ষে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের পক্ষে এই সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব)  হোসনে আরা বেগম এনডিসি এবং জাপান ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউট এর পক্ষে প্রেসিডেন্ট এবং রিপ্রেজেন্টেটিভ ডাইরেক্টর মি. শিনজো কাগাওয়া (Mr. Shingo Kagawa)।

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বাংলাদেশের মানবসম্পদকে উচ্চতর প্রযুক্তিতে দক্ষ করে গড়ে তুলতে ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউট বিভিন্ন প্রশিক্ষণের আয়োজন করবে। এসব প্রশিক্ষণের কোর্স কারিকুলামের মধ্যে থাকবে বিগ-ডাটা, ডাটা সায়েন্স, আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, মেশিন লার্নিং, আইওটি, রোবটিক্স, ব্লক চেইন, সাইবার সিকুরিটি ইত্যাদি। এসব প্রশিক্ষণ দেশের আইটি সেক্টরে দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টিতে ব্যাপক অবদান রাখবে। এই দক্ষ মানবসম্পদ বাংলাদেশ ছাড়াও জাপান এবং অন্যান্য দেশের ক্রমবর্ধান আইটি ইন্ডাস্ট্রির চাহিদা পুরণে ভুমিকা রাখবে। এর ফলে আমাদের কর্মীদের দেশে বিদেশে কর্মসংস্থানের দুয়ার উন্মোচিত হবে বলে সংশ্লিষ্টরা আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এতে উচ্চ প্রযুক্তি বিনিময়ের একটি সুযোগ সৃষ্টি হবে। এছাড়া ফুজিৎসু হাই-টেক পার্কগুলোতে বিদেশি বিশেষ করে জাপানি বিনিয়োগকারিদের আকৃষ্টকরণে কাজ করবে।

এই সমঝোতার আওতায় ফুজিৎসু আইটি ইঞ্জিনিয়ার, গ্রাজুয়েট, স্টার্ট-আপ এবং এনট্রাপ্রিনারদের জন্য প্রশিক্ষণের পাশাপাশি অত্যাবশ্যকীয় সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, ট্রেনিং এবং ওয়ার্কশপের পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন করবে। এছাড়াও বাংলাদেশে আইটি বিজনেস হাব সৃষ্টিতে বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্টকরণে কাজ করবে ফুজিৎসু।

সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী  জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মোঃ নজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মুখ্য সমন্বয়ক (এসডিজি) মোঃ আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানি রাষ্ট্রদূত মি. হিরোইয়াসু ইজুমি (Mr. Hiroyasu Izumi) প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের পরে ‘Bangladesh-Japan Investment Opportunities in ICT Sector’ শীর্ষক ডায়ালগে প্যানেলিস্ট হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআই এর সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম, JETRO এর কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ মি. দায়সুকা আরাই (Mr. Daisuka ARAI) এবং ডাটা সফট এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জনাব মাহবুব জামান। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের পরিচালক ড. খন্দকার

আজিজুল ইসলাম এবং বেসিস এর প্রেসিডেন্ট সৈয়দ আলমাস কবির মডারেটর হিসেবে কাজ করেন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য এবং বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন কার্যক্রমের উপরে প্রেজেন্টেশন দেন ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) জনাব হোসনে আরা বেগম এনডিসি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব জনাব এন এম জিয়াউল আলম।

উল্লেখ্য, চলতি বছরে জাপানে অনুষ্ঠিত ‘আইটি উইক-২০১৯’ এ বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষসহ বেসিস, বাক্ক, বিসিএস এবং দেশের বেশ কিছু আইটি প্রতিষ্ঠান ও উদ্যোক্তারা অংশগ্রহন করে। জাপানে বাংলাদেশি কোম্পানি বিজেআইটি ও ডাটাসফট সুনামের সাথে কাজ করছে যা ‘আইটি উইক-২০১৯’এ ব্যাপকভাবে প্রশংসিত হয়। সেখানে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের একটি প্রতিনিধি দল ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউটের ডাটা সেন্টার পরিদর্শন করেন এবং মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। তখনই বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সাথে ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউটের একসাথে কাজ করার ব্যাপরে প্রাথমিক আলোচনা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় আজ এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হলো। সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা ও ফুজিৎসু রিসার্চ ইন্সটিটিউট এর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

*

*