বাংলাদেশ ইডটকো নির্মাণ করবে গ্রামীণফোনের ৫০০ টাওয়ার

e.co

ডিজিটাল বাংলাদেশের কানেক্টিভিটি পার্টনার গ্রামীণফোন সম্প্রতি ইন্টিগ্রেটেড টেলিকমিউনিকেশন ইনফ্রাস্ট্রাকচার সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান ইডটকো বাংলাদেশের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। এ চুক্তির মাধ্যমে দেশজুড়ে কানেক্টিভিটির সম্ভাবনা উন্মোচনে ইডটকো বাংলাদেশ গ্রামীণফোনের জন্য ৫শ’ টাওয়ার স্থাপনের পরিকল্পনা করছে।

এ সমঝোতা – বর্তমান কঠিন সময়ে টাওয়ার সম্প্রসারণের মাধ্যমে ডাটা ও ভয়েস সেবা নিশ্চিতে গ্রামীণফোনের প্রতিশ্রুতিরই প্রকাশ। এছাড়াও, প্যাসিভ ইনফ্রাস্ট্রাকচারের সঠিক কার্যকারিতা ও দক্ষ পরিচালনা এবং স্বল্পসংখ্যক টাওয়ার নির্মাণের মাধ্যমে অধিক অপারেটদের সেবা প্রদানের উদ্দেশ্যও পূরণ হবে গ্রামীণফোন ও ইডটকো’র মধ্যে সম্পাদিত এ চুক্তির মাধ্যমে।

এই সম্পর্কে বিটিআরসি চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন. “বাংলাদেশে মোবাইল টাওয়ার ব্যবস্থাপনার জন্য এটি একটি ইতিবাচক যাত্রার শুরু যা গ্রাহকদের মানসম্মত গ্রাহক সেবার নিশ্চিতে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। আর এর বর্ধনশীল চাহিদা রক্ষার্থে গ্রামীণফোনের ধারাবাহিক প্রচেষ্টা প্রশংসার দাবীদার। আমরা আশা করছি যে এই উদ্যোগটি ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানের উদ্দেশ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে ভূমিকা রাখবে।”

গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী ইয়াসির আজমান বলেন, ‘ আমি এখানে বিটিআরসি নেতৃত্বের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই যারা চ্যালেঞ্জিং অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে আমাদেরকে টাওয়ার নির্মানের মাধ্যমে নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণের সুযোগ করে দিয়েছেন। গ্রামীণফোন সবসময়ই গ্রাহকদের চাহিদার বিষয়ে গুরুত্ব প্রদান করে এবং টাওয়ার সম্প্রসারণ গ্রাহকদের উন্নত সেবাদানে এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের সম্ভাবনা উন্মোচনে আমাদের প্রতিশ্রুতি পূরণে সহায়তা করবে। একসাথে আমাদের উদ্দেশ্যে মানুষের ডিজিটাল লাইফস্টাইলের উন্নয়ন ঘটানো এবং দেশের সমাজের ক্ষমতায়ন সম্ভব করে তোলা।’

ইডটকো বাংলাদেশের কান্ট্রি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর রিকি স্টেইন বলেন, ‘বাংলাদেশে একটি বিস্তৃত, টেকসই ও ভবিষ্যতমুখী মোবাইল নেটওয়ার্ক সিস্টেম নির্মাণে আমাদের যৌথ উদ্যোগে গ্রামীণফোনের সাথে কাজ করতে পেরে আমরা আনন্দিত। সেবার মানের কারণে ইডটকো বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেছে। এক্ষেত্রেও, বিশেষ ভূমিকা রাখার ব্যাপারে আমরা আত্মবিশ্বাসী, যা পরিশেষে ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে সহায়তা করবে।’

এ চুক্তি সম্পাদনে কার্যকরী ভূমিকা রাখার জন্য গ্রামীণফোন ও ইডটকো বাংলাদেশ উভয় প্রতিষ্ঠানই ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং বিটিআরসি’র প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছে। বর্তমানে, গ্রামীণফোনের ১৬ হাজারের বেশি টাওয়ার সাইট রয়েছে, যার মধ্যে ১৩ হাজারের বেশি টাওয়ার সাইট ফোরজি সেবাদানে নিয়োজিত।

*

*