ধর্মপাশার আহমেদপুর গ্রামে ভিডিও কনফারেন্সে ইন্টারনেট সংযোগ উদ্বোধন করেন মোস্তাফা জব্বার

BTCL Internet

সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় বিটিসিএল এর ৫০ এমবিপিএস এর সংযোগ ভিডিও কনফারেন্সে উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। মঙ্গলবার সন্ধায় উপজেলার সেলবরষ ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামে বিটিসিএল এর ৫০ এমবিপিএস এর সংযোগ চালু হয়েছে। হাওরবাসী ও নতুন প্রজন্মের জন্য এটি শতভাগ রপ্তানীমুখী সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজে আসবে বলে তিনি মনে করেন।

মন্ত্রী বলেন, “আজকের সন্ধ্যাটা আমার জন্য, আমাদের বিটিসিএল এর জন্য, হাওরবাসী ও আমাদের নতুন প্রজন্মের জন্য এক অসাধারণ সময় এলো। সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার আহমদপুর গ্রামে আজ আমরা বিটিসিএল এর ৫০ এমবিপিএস এর সংযোগ দিলাম। সংযোগটি নিয়েছে একটি শতভাগ রপ্তানীমুখী সফটওয়্যার প্রতিষ্ঠান। শফিউল আলম বিপ্লব নামের আমার এই স্নেহভাজন তার গ্রামে বসে ৪৮ জন মেধাকর্মীকে নিয়ে সফটওয়্যার ও সেবা রপ্তানীর কাজ শুরু করলো। শফিউল তোমাকে আমার নিজের, আমার বিভাগের, আমার প্রজন্মের, তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ও সরকারের পক্ষ থেকে অভিবাদন। যদিও জায়গাটি সুনামগঞ্জের-বস্তুত এতে যাবার যোগাযোগটা নেত্রকোণা ও মোহনগঞ্জ দিয়ে। একাত্তরে এই ধর্মপাশা হয়ে মুক্তিযুদ্ধে গিয়েছিলাম। সেই ধর্মপাশা বাংলাদেশের ডিজিটাল রূপান্তরের এক মাইল ফলক তৈরি করলো। আমরা এর অংশীদার হতে পেরে গর্বিত।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত “ডিজিটাল বাংলাদেশ” মন্ত্রে উজ্জীবিত “Advanced Apps Bangladesh (AAPBD)” এর স্বত্ত্বাধিকারী শফিউল আলম বিপ্লব বলেন- “ ইতিহাস তৈরি হলো আজ। আপনার জন্যই (মোস্তাফা জব্বার) হাওরে BTCL এর 50 Mbps ডেডিকেটেড ইন্টারনেট। তিনি আরও বলেন, The Borak এর যাত্রাও শুরু হবে সেখান থেকে। সাপোর্ট সেন্টার সহ মুল টেকনিক্যাল টীম গাছের ছায়াতে বসে কাজ করবে! টাঙ্গুয়ার হাওর বেসড টুরিজম সেন্টার হবে ইনশাল্লাহ।  সবার দোয়া আর সহযোগিতা কাম্য। এভাবেই এগিয়ে নিয়ে যাবো দেশকে সবাই মিলে।”

*

*