দেশের বাজারে ডুয়েল সিমের ব্ল্যাকবেরি হ্যান্ডসেট

Blackberry PHOTO 2

আজ দুপুরে রাজধানীর স্থানীয় এক হোটেলে ভারতের বিখ্যাত  টেলিকম  এন্টারপ্রাইজ অপটিমাস বাংলাদেশের বাজারে ব্ল্যাকবেরির প্রথম  ডুয়েল সিম ব্যবহার উপযোগি প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট  বাজারজাত করার ঘোষনা দিয়েছে। অপটিমাসের হয়ে বাংলাদেশের বাজারে হ্যান্ডসেটি  বিক্রয় ও বিক্রয়োত্তর সেবা দিবে ইউনিয়ন গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান সিপিএল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অপটিমাস ইনফ্রাকম লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ডাইরেক্টর হারদিপ সিং, ব্ল্যাকবেরির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং মবিলিটি সলিউশনের জেনারেল ম্যানেজার এলেক্স থুরবার ,ইউনিয়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান রানা শফিউল্লাহ ও ইউনিয়ন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাকিবুল কবির। অপটিমাস গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে ব্ল্যাকবেরির সাথে চুক্তি করে। চুক্তি অনুসারে তারা ভারত, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ ও নেপালে ব্ল্যাকবেরি হ্যান্ডটেড প্রস্তুত ও পরিবেশন শুরু করেছে। এলেক্স থুরবার বলেন, আমাদের পার্টনার অপটিমাস ইনফ্রামকমকে অভিনন্দন, তারা বাংলােেদশের বাজারে ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ান গ্রাহকদের জন্য  নিয়ে এসেছে। ব্ল্যাকবেরির সম্পর্কে গ্রাহক যেটি জানে, এটি একটি নিরাপদ এবং ব্যবহার বান্ধব হ্যন্ডসেট। সেটি সুরক্ষিত রাখতে আমরা অপটিমাসের সাথে নিবিড়ভাবে কাজ করেছি।  ডিভাইসটির প্রতিটি স্তরের তৈরির সাথে আমরা জড়িত থেকে এর মান নিশ্চিত করেছি। যাতে করে  গ্রাহকরা যে ব্ল্যাকবেরিকে চেনেন, সেটি এ ডিভাইসেও থাকে। ইউনিয়ন গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাকিবুল কবির বলেন, অপটিমাসের সাথে যৌথভাবে ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ান লিমিটেড ব্ল্যাক এডিশনটি বাংলাদেশে নিয়ে আসাতে পেরে আমরা খুব আনন্দিত। গ্রাহকের কাছে উদ্ধাবনী ও সর্বশেষ প্রযুক্তির হ্যান্ডসেট পৌঁছে দেয়ার যে প্রতিজ্ঞা আমাদের আছে, ব্ল্যাকবেরি কী ওয়ান  তারই অংশ। আমি আশা করছি গ্রাহকরা এতে ইতিবাচক সাড়া দেবেন।

ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ান লিমিটেড ব্ল্যাক এডিশনটি বাংলাদেশি গ্রাহকদের জন্য আলাদাভাবে ডুয়েল সিমে ডিজাইন করা হয়েছে। এটি মেটালিক কালো ফ্রেম এবং সফট টাচ্ স্ক্রিনে সাজানো হয়েছে। এটি  করনিং গরিলা ৪ গ্লাস সহ ৪.৫ ইঞ্চি  ডিসপ্লেতে তৈরি করা হয়েছে। এতে রয়েছে টাচ স্ক্রিনসহ একটি ফিজিক্যাল কি-বোর্ড। ৪ গিগাবাইট র‌্যাম এবং ৬৪ গিগাবাইট মেমরী (২ টেরাবাইট পর্যন্ত বৃস্তৃত করা যাবে)। ডিভাইসটির স্মার্ট কিবোর্ডটি ব্ল্যাকবেরির  ট্রাকপ্যাডের ঐতিহ্যকে অনুকরণ করে করা হয়েছে  যাতে ওয়েব ব্রাউজিং, ইমেইল এবং মেসেজ লেখা আরও সহজ  হয়। এটি ৫২ কাস্টমাইজ শর্টকাট পর্যন্ত চালু করতে পারবে, এমনকি ব্যাবহারে অনেক সুবিধাও প্রদান করতে পারে। ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ানে রয়েছে কার্যকরী এবং নিরাপত্তা জনিত ফিঙ্গার প্রিন্ট যা কি-বোর্ডে স্পেস বারেরও কাজ করবে।  নিরাপত্তা এবং সুবিধা ব্ল্যাকবেরির জনপ্রিয় নিরাপত্তার সাথে সামাঞ্জস্য রেখে বাজারে এসেছে ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ান লিমিটেড ব্ল্যাক এডিশনটি। স্মার্ট ফোনটি সবচেয়ে নিরাপদ এনড্রয়েট স্মার্ট ফোনের অভিজ্ঞতা প্রদান করবে। ব্যাবহারকারীরা নিজেরাই তাদের অপারেটিং সিস্টেম এবং অ্যাপসগুলো নজরদারি করতে পারবে যখন তাদের গোপনীয়তা ঝুঁকিতে থাকবে এবং পদক্ষেপ নিতে পারবে কারন এটি ব্ল্যাকবেরি দ্বারা ডিটেকটর সাথে আগে থেকেই লোড হয়ে আসে। ফোনটি এনড্রয়েট ৭.১ চলবে যা থেকে ব্যাবহারকারীরা খুব সহজে গুগল প্লে স্টোরে এবং অ্যাপ্লিকেশনগুলোতে একসেস পাবে। এখানে ব্ল্যাকবেরির হাবটির সাথে সংযুক্ত করা হয়েছে ইউনিফাইড ম্যাসেজিং ইনবক্স যা ফেসবুক, টুইটার, লিংকডইন, বিবিএম, হোয়াটস অ্যাপ এবং অন্যান্য সামাজিক মাধ্যমের একাউন্টের ইমেইল একীভূত থাকবে।

ডিজাইন এবং নিরাপত্তা বৈশিষ্ঠ ছাড়াও ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ান লিমিটেড ব্ল্যাক এডিশনটি সম্পূর্ণ ভিন্ন এবং ব্যাবহারকারীর জন্য আকর্ষনীয় ভাবে উপযোগী। ফোনটির প্রসেসর স্ন্যাপড্রাগন ৬২৫ টু গিগাহার্টজ অক্টাকোর প্রসেসর। এটিতে কোয়ালকম কুইক চার্জ ৩.০ প্রযুক্তি ব্যাবহার করে ৩৫০৫ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে, যাতে করে ৩৬ মিনিটের মধ্যে ৫০% চার্জ পাওয়া যাবে। ওয়াইড এঙ্গেল সহ ৮ মেগা পিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা এবং ১২ মেগা পিক্সেল অটো ফোকাস রেয়ার ক্যামেরায় পেশাদার ছবি তোলার জন্য ফোনটির বিশেষত্ব রয়েছে।

বাংলাদেশের বাজারে  ২২ জানুয়ারী থেকে ব্ল্যাকবেরি কী-ওয়ান লিমিটেড এডিশন  ব্ল্যাক হ্যান্ডসেটটি পাওয়া যাবে। দাম ৫৩ হাজার ৯৯০ টাকা।

*

*