দেশজুড়ে সেবা নগদ

Nagad

দেশব্যাপী ৬৪টি জেলার পোস্ট অফিসে সেবা প্রদান করার পাশাপাশি ১০০,০০০ এরও বেশি উদ্যোক্তাদের মাধ্যমে এখন ডিজিটাল আর্থিক লেনদেন এর সেবা প্রদান করছে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের ডিজিটাল আর্থিক সেবা “নগদ”। গ্রাহকদের অ্যাকাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে আর্থিক লেনদেনেও সাহায্য করবেন “নগদ” উদ্যোক্তাগণ।

গত মার্চ ২৬, ২০১৯ তারিখ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সেবাটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করার পরবর্তী সময়ে এই অগ্রগতী সাধন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ডাক বিভাগ থেকে জানানো হয় যে, “বাংলাদেশ ডাক বিভাগের সেবা “নগদ” এর মূল লক্ষ্য দেশব্যাপী প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কাছে এই উদ্যোক্তাদের মাধ্যমে ডিজিটাল আর্থিক সেবা পৌছে দেওয়া। আর উদ্যোক্তা সৃষ্টির মাধ্যমে তরুণদের মধ্যে হচ্ছে কর্মসংস্থান। সামগ্রিকভাবে “নগদ” দেশের অর্থনীতিতে ক্রমান্বয়ে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে বলে বাংলাদেশ ডাক বিভাগের বিশ্বাস।”

গ্রাহকদের জন্য ঝামেলাহীন প্রক্রিয়া নিশ্চিত করতে ইতিমধ্যে “নগদ” এর ডিজিটাল কেওয়াইসি নিবন্ধন উন্মোচন করা হয়েছে। এ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ক্রেতাদের প্রয়োজন তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র ও নিবন্ধনকৃত মোবাইল। গ্রাহকের ছবি ও পরিচয়পত্র নির্বাচন কমিশনের ডাটাবেজের সাথে মিলিয়ে দেখা হবে। কেওয়াইসি আবেদন পত্রের নির্দিষ্ট ঘর স্বয়ংক্রিয় স্ক্যানিং প্রক্রিয়ায় পরিচয় পত্রের তথ্য থেকে পূরণ হবে। এক্ষেত্রে, প্রত্যেক গ্রাহকের জন্য এ নিবন্ধন প্রক্রিয়া দুই মিনিটেরও কম সময়ে সম্পন্ন করা যাবে। উল্লেখ্য যে, একজন গ্রাহক তার জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে কেবল একটি “নগদ” একাউন্ট খুলতে পারবেন।

*

*