কোভিড-১৯ মোকাবেলায় উদ্ধাবনী ভূমিকার জন্য কমিউনিকএশিয়া পুরষ্কার পেল রবি

CommunicAsia-Awards-Logo

কোভিড-১৯ মহামারী চলাকালে উদ্ভাবনী উপায়ে গ্রাহক এবং এন্টারপ্রাইজ গ্রাহকদের সেবা প্রদানের স্বীকৃতি হিসেবে সম্প্রতি একটি আন্তর্জাতিক পুরষ্কার পেয়েছে রবি। কোভিড-১৯ ক্যাটাগরিতে টেলিযোগাযোগ সেবায় উদ্ভাবনী পদক্ষেপ নেয়ায় সিঙ্গাপুর-ভিত্তিক কমিউনিকএশিয়া ২০২০ পুরষ্কার পেয়েছে অপারেটরটি যা ডিজিটাল উদ্ভাবনে রবি’র অগ্রণী ভূমিকারই প্রতিফলন।

দেশে কোভিড-১৯ মহামারী আঘাত হানার শুরু থেকেই রবি দৃঢ় মানসিকতার সাথে এই পরিস্থিতিকে মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত হয়েছিল। গ্রাহকদের মহামারী থেকে রক্ষা করতে বেশ কয়েকটি উদ্ভাবনী উদ্যোগ গ্রহণ করেছে কোম্পানিটি।

নির্ভরযোগ্য ডিজিটাল হেলথ কেয়ার পণ্য, যেমন: হেলথ-প্লাস এবং লাইফপ্লাস দিয়ে রবি জনসাধারণের জন্য মহামারী চলাকালীন স্বাস্থ্যসেবা আরও সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী করার চেষ্টা করেছে। উবার মডেলের সাথে সামঞ্জস্য রেখে অনন্য মোবাইল-ভিত্তিক স্বাস্থ্যসেবা মডেল এবং একটি বিশেষ কোভিড বীমা প্যাকেজ বাজারে এনেছে কোম্পানিটি।

রবির প্রিমিয়ার অনলাইন টিকেটিং প্ল্যাটফর্ম- বিডিটিকেটস বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ‘কোভিড ট্র্যাভেল ইন্স্যুরেন্স’ চালু করে যা করোনা মহামারীর ফলে বিধ্বস্ত পরিবহণ শিল্পের জন্য একটি তাৎপর্যপূর্ণ উদ্যোগ হিসেবে কাজ করছে।

ডিজিটাল অ্যাগ্রো বান্ডেলের সহায়তায় ওভার-দ্য টপ (ওটিটি) যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম- কৃষিভাই অ্যাপের মাধ্যমে কৃষকদের মধ্যে পাপস্পরিক যোগাযোগ নিশ্চিত করেছে রবি। অল্টারনেট ক্রেডিট স্কোরিং’র সহায়তায় ফোন লোন ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে চলমান ডিজিটাল বৈষম্য হ্রাস করার উদ্যোগ নিয়েছে অপারেটরটি।

এছাড়া উইম্যান-লিডারশিপ ও রিটেইলার-ফিন্যান্সিং উদ্যোগের মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখা এবং মহামারীর ফলে দুর্ভোগে পড়া হাজার হাজার খুচরা বিক্রেতাকে ব্যবসা ধরে রাখতে সহায়তা করা হয়েছে। আন্তর্জাতিক পুরস্কার জয়ের ক্ষেত্রে এসব উদ্ভাবনী উদ্যোগগুলো ভূমিকা রেখেছে।

টেলিযোগাযোগ শিল্পের সাফল্য ও অসামাস্য অবদানকে স্বীকৃতি দিয়েছে কমিউনিক এশিয়া ২০২০ অ্যাওয়ার্ডস। ফাইভজি প্রযুক্তির জন্য প্রস্তুত হচ্ছে এই অঞ্চল; সেই দিকটির দিকে নজর রেখে পরবর্তী প্রজন্মের নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে অর্জিত সাফল্যকে উদযাপন করাই কমিউনিক এশিয়া অ্যাওয়ার্ডস’র উদ্দেশ্য।

*

*