কাল আইএসপিএবির নির্বাচন

ispab

আগমাীকাল দেশের ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবির কার্যকরী কমিটির ২০১৯-২১ মেয়াদের নির্বাচন।

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে যাচ্ছে নির্বাচনে অংশগ্রহনকারী দুইটি প্যানেল ‘টিম ইউনাইটেড’ এবং ‘টিম ক্যাটালিস্ট’। তবে এরই মধ্যে সাধারণ ভোটারদের মধ্যে বিরুপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিচ্ছে। তারা অভিযোগ করছেন টিম ইউনাইটেডের বিপরীতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে সাইবার ক্যাফে ওনার্স অ্সোযাসিয়েশন অব বাংলাদেশ-সিকোয়াব। যা মুলত সাধারণ  ভোটাররা মেনে নিতে পারছেন না  এবং তারা বলছেন, আইএসপিএবির নির্বাচনে ‘সিকোয়াব’ নির্বাচিত হলে নিজেদের মূল ব্যবসা সাইবার ক্যাফে, খুচরা ইন্টারনেট ব্যবসা সংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়েই কাজ করবে। ফলে যুক্তিসঙ্গত কারণেই দেশের মূল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবির স্বার্থ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ইন্টারনেটে উল্লেখযোগ্য উন্নতি বিশেষ করে আইপি টিভির মতো নতুন টেকনোলজি কখনোই আলোর মুখ দেখবে না।

এ বিষয়ে কথা হয় আইএসপিএবির কয়েকজন ভোটারের সঙ্গে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে  তিনি অভিযেগা করে বলেন, টিম ক্যাটালিস্ট তাদের প্যানেলে যে ৮ প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে তাদের মধ্যে ৩ জনই সিকোয়াব ও ক্যাবল অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সঙ্গে জড়িত। এর মধ্যে- জেডএক্স অনলাইনের চেয়ারম্যান এস, এম, জুলফিকার হায়দার সিকোয়াবের সাবেক সভাপতি। এছাড়া ডলি আইটি কর্নারের প্রোপাইটার মো. মনিরুজ্জামান মনির সিকোয়াবের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক। আর ব্রীস্ক সিস্টেমের চেয়ারম্যান মো. শরিফুল ইসলাম সিকোয়াবের সাবেক সহ সভাপতি।

তিনি বলেন, প্যানেলের নাম ‘টিম ক্যাটালিস্ট’ হলেও মূলত এর আড়ালে আছে ‘সিকোয়াব’। কাজেই যৌক্তিকভাবেই টিম ক্যাটালিস্ট প্যানেল নির্বাচনে জয়ী হলে আইএসপিএবির স্বার্থ দেখবে না। তারা সাইবার ক্যাফেসহ ছোটখাট ইন্টারনেট সংযোগ বা খুচরা ক্যাবল ব্যবসায়িদের স্বার্থ নিয়ে কাজ করবে। এতে করে দেশের ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সংগঠন আইএসপিএবি হুমকির মুখে পড়বে।

আইএসপিএবি জানিয়েছে, সাধারণ ক্যাটাগরিতে দুটি প্যানেলে ৯ পদের বিপরীতে ১৭ এবং সহযোগী ক্যাটাগরিতে চার পদের বিপরীতে দুটি প্যানেলে ৮ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাধারণ ক্যাটাগরিতে ভোটার ১১৪ হলেও সহযোগী ক্যাটাগরিতে ৩১৭ জন।

আম্বার আইটির প্রধান নির্বাহী আমিনুল হাকিমের নেতৃত্বে একটি প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। ‘টিম ইউনাইটেড’ নামের এই প্যানেলে রয়েছেন বর্তমান কমিটির পাঁচজন।  প্যানেলে পুরনোদের মধ্যে রয়েছেন- বর্তমান সভাপতি আমিনুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক-সহ রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ, কামাল হোসেন, মইন উদ্দিন আহমেদ। আর নতুন চারজন হলেন- চট্টগ্রামের সিটিজি টেলিকমের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আনোয়ারুল আজিম, ঢাকার কেএস নেওয়ার্কের প্রধান নাজমুল হক ভুঁইয়া, বিটিএস কমিউনিকেশন্সের সিটিও মো. সারওয়ার আলম শিকদার ও নেক্সট অনলাইন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আহমেদ জুনায়েদ।

টিম ইউনাইটেড প্যানেলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন বর্তমান সভাপতি আমিনুল হাকিম।

তিনি বলেন, ‘টিম ইউনাইটেড প্যানেল নির্বাচিত হলে আইএসপিএবির সদস্যদের স্বার্থ রক্ষা করা হবে। ব্যবসা যেন পেশীশক্তির কব্জায় চলে না যায় সে চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আর যা চলে গেছে তা সুস্থ ও মূল ধারায় ফিরিয়ে আনা হবে।’

অপরদিকে, ৮ প্রার্থী নিয়ে গঠিত ‘টিম ক্যাটালিস্ট’ প্যানেল। প্যানেল প্রার্থীরা হলেন- আইসিসি কমিউনিকেশনরে ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফুল ইসলাম সিদ্দিক, ব্রাক নেটের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা আজহারুল হক চৌধুরী, গ্রামীণ সাইবারনেটের পরিচালক মো. রুহুল আমিন সরকার, বাংলানেট টেকনোলজিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক জোবায়ের আল মাহমুদ হোসেন, ডলি আইটি কর্নারের প্রোপাইটার মো. মনিরুজ্জামান মনির, জেডএক্স অনলাইনের চেয়ারম্যান এস, এম, জুলফিকার হায়দার, ব্রীস্ক সিস্টেমের চেয়ারম্যান মো. শরিফুল ইসলাম এবং চিটাগাং মাল্টি চ্যানেলের পরিচালক (প্রশাসন) কামরুল আলম শামীম।

আগামী কাল রাজধানীতে ৪৪১ জন ভোটার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

*

*