এমআরপি ও ওয়ারেন্টি নীতিমালা কার্যকর

Warrenty Nitimala

২২ জুলাই ২০১৮ থেকে সারাদেশে কম্পিউটার এবং কম্পিউটার যন্ত্রাংশের উপর `এমআরপি নীতিমালা ২০১৮’ এবং `ওয়ারেন্টি নীতিমালা ২০১৮’ কার্যকর হয়েছে। এ দুটি নীতিমালা বাস্তবায়নের ফলে কম্পিউটার পণ্যের গুণগতমান সুনিশ্চিত করার পাশাপাশি এ পণ্যের বিশ্বস্ততা অর্জিত হবে। একইসঙ্গে আইটি বাজার ব্যবস্থাপনা সুদৃঢ় ও স্থিতিশীল হবে। এতে ভোক্তা এবং কম্পিউটার ব্যবসায়ীরা উভয়ই উপকৃত হবেন।

আজ  রাজধানীর ধানমন্ডির বিসিএস ইনোভেশন সেন্টারে এমআরপি এবং ওয়ারেন্টি নীতিমালা বাস্তবায়ন বিষয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) এর সভাপতি ইঞ্জি. সুব্রত সরকার। তিনি বলেন, কম্পিউটার এবং কম্পিউটার সংশ্লিষ্ট যন্ত্রাংশ বা পণ্য ব্যবসায় অনুমোদিত উৎপাদনকারী, আমদানিকারক, পরিবেশক ও খুচরা বিক্রেতার স্বার্থ সংরক্ষণ, ব্যবসায়িক উন্নয়ন এবং ক্রেতাসাধারণের স্বার্থরক্ষা ও সন্তুষ্টির লক্ষ্যে এমআরপি নীতিমালা ২০১৮ প্রণীত হয়েছে। আর বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ক্রেতা ও ভোক্তাদের জন্য একটি গ্রহণযোগ্য ও বাস্তবধর্মী ওয়ারেন্টি নীতিমালা প্রবর্তন করা হয়েছে।

বিসিএস সভাপতি বলেন, সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য (এমআরপি) নির্ধারিত হওয়ার কারণে ক্রেতাদের প্রতারিত  হওয়ার কোন সুযোগ নেই। কম্পিউটার বা কম্পিউটার যন্ত্রাংশ কেনার ক্ষেত্রে দেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে প্রযুক্তি পণ্যের গায়ে লাগানো এমআরপি স্টিকার মূল্যে পণ্য কেনার সুযোগ থাকছে ভোক্তাদের। এমআরপি নীতিমালা ২০১৮ হবে সার্বজনীন।

বিভিন্ন প্রযুক্তি মেলা বা প্রদর্শনীতে প্রযুক্তি পণ্যে ছাড় থাকবে কী না, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ইঞ্জি. সুব্রত সরকার বলেন, এমআরপি নীতিমালা মানে এই নয় যে, প্রযুক্তি পণ্যে কখনো ছাড় দেয়া যাবে না। যেকোন মেলা বা প্রদর্শনীতে প্রযুক্তি পণ্যের উপর ছাড় দেয়া যাবে। তবে এ ছাড় শুধু মেলায় সীমাবদ্ধ থাকবে না। ছাড় সুবিধাও হতে হবে সার্বজনীন। মেলায় ঘোষণাকৃত কম্পিউটার এবং এর যন্ত্রাংশের ছাড়মূল্য যত থাকবে, একই মূল্যে সারাদেশ থেকে সেই পণ্য কেনা যাবে। এতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষিত হবে।

এমআরপি ও ওয়ারেন্টি পলিসি প্রতিটি প্রযুক্তি পণ্যের বিক্রয় কেন্দ্রে সংরক্ষিত থাকবে। সর্বসাধারণের জন্য বিসিএস ওয়েবসাইটে (www.bcs.org.bd) নীতিমালা দুইটি পাওয়া যাবে। ভোক্তা এমআরপি ও ওয়ারেন্টি সংক্রান্ত যেকোনো অভিযোগ বিসিএস’কে লিখিতভাবে জানাতে পারবেন। তাছাড়াও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগ করার সুযোগ রয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন বিসিএস সহ-সভাপতি ইউসুফ আলী শামীম, মহাসচিব মোশারফ হোসেন সুমন, কোষাধ্যক্ষ মো. জাবেদুর রহমান শাহীন, পরিচালক ও ওয়ারেন্টি কমিটির চেয়ারম্যান  মো. আছাব উল্লাহ্ খান জুয়েল এবং পরিচালক ও এমআরপি কমিটির চেয়ারম্যান মো. মোস্তাফিজুর রহমান।

ভোক্তাদের এমআরপি এবং ওয়ারেন্টি বিষয়ে কোন সমস্যা হলে তাৎক্ষণিক প্রতিকার পাওয়ার জন্য রাখা হচ্ছে হটলাইন সেবা। ভোক্তারা এই সংক্রান্ত সমস্যায় ০১৮৪৭২৮৯০৯৫ নাম্বারে যোগাযোগ করে নিজের সমস্যা বিসিএস কে অবহিত করতে পারবেন।

 

*

*