আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের অপেক্ষায় স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা ২০১৮

Laptop Fair 2018

আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন না হলেও রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পর্দা উঠেছে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার । আজ বিকেল ৪টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মেলার উদ্বোধন করবেন মাননীয় ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মাননীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত থাকবেন স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশের হেড অব মোবাইল মুয়ীদুর রহমান, ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের সিইও রেজওয়ানুল হক, এডিসন গ্রুপের সিনিয়র ডিরেক্টর (হেড অব বিজনেস) মাকসুদুর রহমান, উই স্মার্ট সল্যুউশনের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার ও হেড অব ব্র্যান্ড অ্যান্ড কমিউনিকেশন মুনতাসির আহমেদ, হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ বাংলাদেশের ক্যান্ট্রি ডিরেক্টর অ্যারন শী, নকিয়া বাংলাদেশের হেড অব মার্কেটিং ইফাত জহুর, অপ্পো বাংলাদেশের মার্কেটিং ডিরেক্টর ব্রুস লি, ভিভো বাংলাদেশের ক্যান্ট্রি সেলস ডিরেক্টর শ্যারন ওয়েন এবং এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান।

স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে দেশে এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি দশম প্রদর্শনী। এবারের মেলায় বিশ্বখ্যাত সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পাওয়া যাচ্ছে। অংশ নিয়েছে স্যামসাং, টেকনো, সিম্ফনি, উই, হুয়াওয়ে, নকিয়া, অপ্পো, ভিভো, আইফোন, লাভা, উইনম্যাক্স, লেনেভো, ডিটেইল, উইমিডিজি, সোলার ইলেক্ট্রো এবং বিজয়সহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান। ব্র্যান্ডগুলো মেলায় বিভিন্ন মডেলের স্মার্টফোন ও স্মার্ট ডিভাইস প্রদর্শন ও বিক্রি করছে। পাওয়া যাচ্ছে মোবাইল অ্যাক্সেসরিজও। এ ছাড়া বেশ কিছু মডেলের স্মার্টফোন উন্মোচন ও করা হবে।

এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান জানান, প্রদর্শনী উপলক্ষে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ ছাড় ও উপহার দিচ্ছে। দর্শকরা প্রযুক্তির আধুনিক সব স্মার্ট ডিভাইস যাচাই বাছাই করে দেখতে ও কিনতে পারছেন। এ ছাড়া থাকবে অন্যান্য আয়োজন।

এবারের মেলার প্লাটিনাম স্পন্সর হিসেবে রয়েছে স্যামসাং ও টেকনো। গোল্ড স্পন্সর হিসেবে রয়েছে সিম্ফনি ও উই। সিলভার স্পন্সর হিসেবে রয়েছে হুয়াওয়ে, নোকিয়া, অপ্পো, ভিভো। প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলা চলবে শনিবার পর্যন্ত।

*

*